উটের শরীরের গঠন সম্পর্কে কিছু আকর্ষণীয় তথ্য

উত্তরাপথ: মরুভূমির জাহাজ নামে পরিচিত উটের কিছু আকর্ষণীয় শরীরের গঠন বৈশিষ্ট্য রয়েছে । উটের শরীরের গঠন এর মধ্যে একটি হল তাদের কুঁজ। বেশীরভাগ লোক বিশ্বাস করে যে উটের , কুঁজটি জলে পরিপূর্ণ থাকে,কিন্তু বাস্তবে, কুঁজটি জলে নয়, চর্বি দিয়ে ভরা থাকে। উটগুলি তাদের কুঁজে প্রচুর পরিমাণে চর্বি সঞ্চয় করতে পারে, যা শুষ্ক পরিবেশের মধ্য দিয়ে দীর্ঘ ভ্রমণের সময় যখন খাদ্য এবং জলের অভাব হয় তখন শক্তির রিজার্ভ হিসাবে কাজ করে।

উটের শক্ত, পুরু চামড়া সহ বড়, প্যাডযুক্ত পা থাকে। এই পায়ের গঠন তাদের সহজে বালুকাময় এবং পাথুরে ভূখণ্ডের মধ্য দিয়ে চলাচল করতে সাহায্য করে। চওড়া, ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা পায়ের আঙ্গুলগুলি তাদের বালিতে ডুবতে বাধা দেয়, উটের পুরু ত্বক তাদের পাক, চরম তাপমাত্রা এবং রুক্ষ পৃষ্ঠ থেকে রক্ষা করে।

উটের লম্বা, সরু পা থাকে যা দীর্ঘ দূরত্ব অতিক্রম করার জন্য পুরোপুরি উপযুক্ত। তাদের প্রসারিত অঙ্গগুলি তাদের একটি দীর্ঘ পদক্ষেপের সহায়ক। এই অভিযোজন তাদের কঠিন যাত্রার সময় শক্তি সংরক্ষণ করতে সাহায্য করে।

উটের শরীরের গঠন এর মধ্যে একটি হল এদের প্রশস্ত বক্ষ যা তাদের দীর্ঘ সময় মধ্যে জল ছাড়া বাতাস থেকে শুধুমাত্র অক্সিজেন গ্রহণ করে বেঁচে থাকতে সহায়তা করে, নিশ্চিত করে যে তারা তাদের মরুভূমির আবাসস্থলগুলির চ্যালেঞ্জগুলি সহ্য করতে পারে।

উটগুলির একটি অনন্য পাচনতন্ত্র রয়েছে যা তাদের বিরল গাছপালা থেকে সর্বাধিক পুষ্টি আহরণ করতে দেয়। রুমেন, রেটিকুলাম এবং ওমাসাম সহ তাদের তিনটি বগির পাকস্থলী রয়েছে, যা খাদ্য ভাঙ্গতে এবং পাঁচনে সহায়তা করে। এই অভিযোজন তাদের খাদ্য থেকে আর্দ্রতা বের করতে এবং আরও দক্ষতার সাথে জল সংরক্ষণ করতে দেয়।

উটের লম্বা, পুরু চোখের দোররাগুলির একটি ডবল সারি থাকে যা তাদের চোখকে মরুভূমির তীব্র বাতাস এবং প্রবাহিত বালি থেকে রক্ষা করতে সহায়তা করে। এই চোখের দোররা প্রাকৃতিক বাধা হিসাবে কাজ করে, যা তাদের চোখে পৌঁছায় এমন বালি এবং ধুলোর পরিমাণ হ্রাস করে।

বালি এবং ধূলিকণা তাদের শ্বাসযন্ত্রে প্রবেশ করতে বাধা দেওয়ার জন্য, উটের তাদের নাসারন্ধ্র সম্পূর্ণরূপে বন্ধ করার ক্ষমতা রয়েছে। এই অভিযোজন ধ্বংসাবশেষের শ্বাস-প্রশ্বাস কমিয়ে ধুলোময় মরুভূমির পরিবেশে বেঁচে থাকতে সাহায্য করে।

উটের শরীরে জল সংরক্ষণ করার অবিশ্বাস্য ক্ষমতা রয়েছে। তাদের কিডনি তাদের প্রস্রাব থেকে জল পুনরায় শোষণে অত্যন্ত দক্ষ, এবং তারা জলশূন্য না হয়ে উল্লেখযোগ্য জলের ক্ষতি সহ্য করতে পারে। এই অভিযোজন তাদের জল ছাড়াই দীর্ঘ সময়ের জন্য বেঁচে থাকতে দেয়।

উটের শরীরের গঠনের এই অনন্য বৈশিষ্ট্যগুলি তাদের কঠোর মরুভূমির পরিস্থিতিতে উন্নতি করতে সক্ষম করে এবং শুষ্ক পরিবেশে দীর্ঘ দূরত্ব ভ্রমণের জন্য উপযুক্ত করে তোলে।

খবরটি শেয়ার করুণ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন


সেলফির উচ্চ রেটিং কি আপনাকে আরওপাতলা হতে উৎসাহিত করছে ?

উত্তরাপথঃ সাম্প্রতিক একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে সেলফি তোলা এবং নিজেকে পাতলা হিসাবে দেখানোর মধ্যে একটি সম্পর্ক থাকতে পারে। যুক্তরাজ্যের ইয়র্ক সেন্ট জন ইউনিভার্সিটির রুথ নাইট এবং ইউনিভার্সিটি অফ ইয়র্কের ক্যাথরিন প্রেস্টন সম্প্রতি PLOS ONE জার্নালে তাদের ফলাফল প্রকাশ করেছেন।সেখানে সেলফির উচ্চ রেটিং এবং আমাদের শরীরের গঠনের মধ্যে যোগসূত্র খোঁজার চেষ্টা করা হয়েছে।    বর্তমান সোশ্যাল মিডিয়ায় সেলফি হল এক জনপ্রিয় ছবি দেওয়ার ধরন। যিনি সেলফি তোলেন তিনি ক্যামেরাকে তাদের শরীর থেকে দূরে রেখে নিজেই নিজের ছবি তোলে। আগের গবেষণায় বলা হয়েছে সেলফিগুলি দেখার ফলে ছবির বিষয়গুলি সম্পর্কে দর্শকদের সিদ্ধান্ত প্রভাবিত হতে পারে। .....বিস্তারিত পড়ুন

Free Gift in Politics: ভারতের নির্বাচন ও ফ্রি গিফট সংস্কৃতি

উত্তরাপথঃ ফ্রি গিফট (Free gift in politics)এর রাজনীতি সম্প্রতি ভারতের নির্বাচনী রাজনীতিতে একটি বিশিষ্ট ভূমিকা পালন করছে। বিনামূল্যে কোটি কোটি জনগণকে উপহার প্রদান যা রাজকোষের উপর অতিরিক্ত বোঝা ফেলবে এই সত্যটি জানা সত্ত্বেও, রাজনৈতিক দলগুলি ভোটারদের আকৃষ্ট করার জন্য ফ্রি গিফট (Free gift in politics) দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে নির্বাচনের দৌড়ে একে অপরের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে।এক সময় প্রয়াত তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী জে জয়ললিতা বিনামূল্যে শাড়ি, প্রেসার কুকার, ওয়াশিং মেশিন, টেলিভিশন সেট ইত্যাদির প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভোটের আগে যে বিনামূল্যের সংস্কৃতি শুরু করেছিলেন তা পরবর্তী কালে অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলি দ্রুত অনুসরণ করেছিল। এরপর ২০১৫ সালে আম আদমি পার্টি নেতৃত্ব দিল্লির ভোটারদের কাছে বিনামূল্যে বিদ্যুৎ, জল, বাস ভ্রমণের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দিল্লির বিধানসভা নির্বাচনে জয়লাভ করেছিল। .....বিস্তারিত পড়ুন

সম্পাদকীয়-  রাজনৈতিক সহিংসতা ও আমাদের গণতন্ত্র

সেই দিনগুলো চলে গেছে যখন নেতারা তাদের প্রতিপক্ষকেও সম্মান করতেন। শাসক দলের নেতারা তাদের বিরোধী দলের নেতাদের কথা ধৈর্য সহকারে শুনতেন এবং তাদের সাথে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখতেন।  আজ রাজনীতিতে অসহিষ্ণুতা বাড়ছে।  কেউ কারো কথা শুনতে প্রস্তুত নয়।  আগ্রাসন যেন রাজনীতির অঙ্গ হয়ে গেছে।  রাজনৈতিক কর্মীরা ছোটখাটো বিষয় নিয়ে খুন বা মানুষ মারার মত অবস্থার দিকে ঝুঁকছে। আমাদের দেশে যেন রাজনৈতিক সহিংসতা কিছুতেই শেষ হচ্ছে না।আমাদের দেশে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার চেয়ে রাজনৈতিক সংঘর্ষে বেশি মানুষ নিহত হচ্ছেন।  ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরো (এনসিআরবি) অনুসারে, ২০১৪ সালে, রাজনৈতিক সহিংসতায় ২৪০০ জন প্রাণ হারিয়েছিল এবং সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় ২০০০ জন মারা গিয়েছিল।  আমরা পৃথিবীর বৃহত্তম গণতন্ত্র হিসেবে আমাদের দেশের গণতন্ত্রের জন্য গর্বিত হতে পারি, কিন্তু এটা সত্য যে আমাদের সিস্টেমে অনেক মৌলিক সমস্যা রয়েছে যা আমাদের গণতন্ত্রের শিকড়কে গ্রাস করছে, যার জন্য সময়মতো সমাধান খুঁজে বের করা প্রয়োজন। .....বিস্তারিত পড়ুন

Roop Kishor Soni: একটি আংটিতে বিশ্বের আটটি আশ্চর্য তুলে ধরেছেন

উত্তরাপথঃ রাজস্থান মানেই ওজনদার রূপার গহনা ,আর তার উপর কারুকাজ। প্রচলিত এই ধারনা ভেঙ্গে আজ রূপোর গহনাকে আধুনিকতার সাথে শিল্পের এক অপূর্ব মেলবন্ধন ঘটিয়েছেন যে ব্যক্তি তিনি হলেন রূপ কিশোরী সোনী(Roop Kishor Soni)।তিনি ২০১৬ সালের ৯ ডিসেম্বর প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির কাছ থেকে তার অসাধারণ শিল্প কর্মের জন্য জাতীয় পুরুস্কার পান। রাজস্থানের জয়সলমেরের শহরের এই শিল্পী ৩.৮ গ্রাম ওজনের ০.৯ সেমি চওড়া রৌপ্য আংটিতে বিশ্বের আটটি আশ্চর্য খোদাই করেছেন।এই ছোট রূপার আংটিতে শিল্পী তাজমহল, সিডনি অপেরা হাউস, স্ট্যাচু অফ লিবার্টি, চীনের গ্রেট ওয়াল, আইফেল টাওয়ার, বিগ বেন, পিসার হেলানো টাওয়ার এবং মিশরীয় পিরামিডের চিত্র এক সাথে ফুটিয়ে তুলেছেন।এছাড়াও তিনি আরও দুটি পৃথক ডিজাইনের অত্যাশ্চর্য আংটি  তৈরি করেছেন।৮.৬ গ্রাম ওজনের একটি রিংয়ে তিনি সূর্যাস্তের সময় ভারতীয় উট সাফারি সহ ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলের বিভিন্ন ভারতীয় বিশেষত্ব ফুটিয়ে তুলেছেন,এবং অন্যটিতে বিভিন্ন হিন্দু দেব-দেবী ছবি এবং মন্দির খোদাই করেছিলেন। শিল্পী বলেছেন যে তিনি তার বাবার কাছ থেকে তার শৈল্পিক দক্ষতা উত্তরাধিকারসূত্রে পেয়েছেন। সেই সাথে তিনি বলেন "আমার বাবাও একজন জাতীয় পুরুস্কার প্রাপ্ত শিল্পী ছিলেন। তিনি আমাকে শিল্পের এই দক্ষতা শিখিয়েছিলেন কারণ তিনি পরবর্তী প্রজন্মের মধ্যে শিল্পের ফর্মটিকে বাঁচিয়ে রাখতে চেয়েছিলেন।" .....বিস্তারিত পড়ুন

Scroll to Top