ঋণের টাকা শোধ করতে ছেলেকে বিক্রি করার জন্য রাস্তায় বসলেন বাবা

ঋণের টাকা শোধ করতে ছেলেকে বিক্রির সিদ্ধান্ত ছবি প্রতীকী

উত্তরাপথঃ এ যেন শাহরুখ খানের বাস্তবের জবান। ঋণ করে সামান্য কিছু জমি কিনতে চেয়েছিলেন। কিন্তু সেই ঋণই যে কাঁটার মতো গলায় চেপে বসবে তা কে জানত! শেষ পর্যন্ত ঋণের টাকা শোধ করতে ছেলেকে বিক্রি করার জন্য রাস্তায় বসলেন বাবা। চমকে ওঠার মতো ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের আলিগড়ে। ফুটপাথে প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে বাবা বসে আছেন। প্ল্যাকার্ড হিন্দিতে  হাতে লেখা। যার বাংলা মানে করলে দাঁড়ায়, ‘‘ছেলে বিক্রি আছে। আমি আমার ছেলেকে বিক্রি করতে চাই।’’ এই ছবি ছড়িয়ে পড়তেই তৎপর হয় পুলিশ। উত্তরপ্রদেশের এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই আবার প্রশ্নের মুখে যোগী রাজ্যের প্রান্তিক মানুষদের অর্থনৈতিক অবস্থা।   

আলিগড়ের ই-রিক্সা চালক রাজকুমার। দারিদ্রের সঙ্গে নিত্য সংঘর্ষই তাঁকে বাঁচিয়ে রেখেছে। ই-রিক্সাটিই রোজগারের একমাত্র উপায়। সেই রাজকুমারই নিজের ছেলেকে বিক্রি করতে ফুটপাথে বসেছেন। ৫-৬ লক্ষ টাকার বিনিময়ে।কিন্তু কেন ছেলে বিক্রি করতে হচ্ছে রাজকুমারকে?

 সূত্রের খবর, ছোট্ট একটি জমি কেনার জন্য স্থানীয় মহাজনের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা ঋণ করেছিলেন রাজকুমার। কিন্তু অভিযোগ, ওই মহাজনের হস্তক্ষেপে রাজকুমার আর সেই জমি কিনতে পারেননি। ঋণ করা টাকাও জলে যায় রাজকুমারের। ঋণের দায়ে কোণঠাসা হয়ে পড়েন রাজকুমার। অন্য দিকে, মহাজন টাকা তুলতে অত্যাচার শুরু করেন। রাজকুমারের অভিযোগ, একাধিক বার তাঁর পরিবারকে বাড়ি থেকে বার করে দেওয়া হয়েছে। তাঁকে মারধরও করা হয়েছে । এমনকি টাকা না পেয়ে রাজকুমারের ই-রিক্সাটিও মহাজন ছিনিয়ে নিয়েছিলেন বলে অভিযোগ। সব হারিয়ে অসহায় রাজকুমার স্থির করেন, নিজের ছেলেকেই বিক্রি করে দেবেন। সেই অনুযায়ী, প্ল্যাকার্ড লিখে ফুটপাথে বসে পড়েন স্ত্রী এবং সন্তানের সঙ্গে।

রাজকুমার বলেন, ‘‘টাকা ফেরত চেয়ে মহাজন মাঝেমাঝেই আমার ছেলেমেয়ের সামনে আমাকে মারধর করতেন। বাড়ি থেকে আমাদের কত বার বাইরে বার করে দিয়েছেন। আমার উপার্জনের একমাত্র পথ রিক্সাটিকেও বাজেয়াপ্ত করে নিয়েছেন। থানায় গেলে ধমক দেয়। আমার এফআইআর-ও নেয়নি পুলিশ।’’ রাজকুমারের দাবি, ইতিমধ্যেই তিনি ঋণের ছ’হাজার টাকা ফিরিয়ে দিয়েছেন। বাকি টাকাও ফেরানোর চেষ্টা করছিলেন। কিন্তু মহাজনের অত্যাচার সীমা ছাড়ায়। তাই এক প্রকার বাধ্য হয়েই ঋণের টাকা শোধ করতে ছেলেকে বিক্রি করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। সেই মোতাবেক ফুটপাথে প্ল্যাকার্ড নিয়ে বসে পড়েন। এমন দৃশ্য সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাল হয় সমাজমাধ্যমে। লাগে রাজনীতির রং। বিষয়টিকে প্রকৃত অমৃতকালের সঙ্গে তুলনা করে নিজের এক্স হ্যান্ডলে পোস্ট করেন এসপি প্রধান অখিলেশ যাদব। তার পর নড়েচড়ে বসে পুলিশ। অভিযুক্ত মহাজনকে তড়িঘড়ি গ্রেফতার করা হয়। রাজকুমারও ছেলেকে নিয়ে বাড়ি ফিরে গিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

খবরটি শেয়ার করুণ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন


২০২৩ নির্বাচন কি সত্যি ২০২৪ এর সেমিফাইনাল ?

উত্তরাপথ: ২০২৩ নির্বাচন কি সত্যি ২০২৪ এর সেমিফাইনাল ? না  কি কংগ্রেসের কাছে আবার একটু - একটু  করে ঘুরে দাঁড়াবার প্রচেষ্টা এবং বিজেপির কাছে মোদী ম্যাজিক যে এখনও অব্যাহত সেটা প্রমান করা। বিজেপির এখন প্রচারের একমাত্র মুখ নরেন্দ্র মোদী। সদ্য সমাপ্ত কর্ণাটক নির্বাচনের পুরো প্রচার হয়েছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে কেন্দ্র করে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ, বিজেপির জাতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা সহ মুখ্যমন্ত্রী বাসভরাজ বোমাই নিজেও প্রধানমন্ত্রী মোদির নামে ভোট চাইলেন। তার  উপরে, প্রধানমন্ত্রী মোদি নিজে .....বিস্তারিত পড়ুন

বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের রায়ের বিরুদ্ধে রাস্তায় শিলিগুড়ির প্রাথমিক শিক্ষকরা

উত্তরাপথ: ৩৬ হাজার প্রাথমিক শিক্ষকের চাকরি বাতিল করে দেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। তার প্রতিবাদে শনিবার শিলিগুড়িতে পথে নেমে বিক্ষোভ শুরু করেন শিলিগুড়ির প্রাথমিক শিক্ষকরা। ২০১৪ সালের টেট পরীক্ষার ভিত্তিতে ২০১৬ সালে নিযুক্ত হয়েছিলেন ৪২ হাজার ৫০০ শিক্ষক। এই নিয়োগে ইন্টারভিউতে ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। এমনকি নিয়োগ পরীক্ষায় অ্যাপটিটিউড টেস্টও নেওয়া হয়নি বলে ইন্টারভিউয়াররাই বিচারপতির কাছে সাক্ষ্য দিয়ে জানিয়েছেন। তার ভিত্তিতে ৩৬ হাজার প্রাথমিক শিক্ষকের চাকরি বাতিল করে দেন কলকাতা .....বিস্তারিত পড়ুন

Scroll to Top