একগুচ্ছ কর্মসূচি নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee) স্পেন সফরে

উত্তরাপথঃ  একগুচ্ছ কর্মসূচি নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পেনে রয়েছেন। জানা যাচ্ছে, স্পেনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রথম বৈঠক হবে ফুটবল নিয়ে। ১৪ সেপ্টেম্বর, মাদ্রিদে লা লিগার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্য সরকারের প্রতিনিধিদলের বৈঠক। বাংলা ফুটবলের উন্নতির স্বার্থে সরকারের সঙ্গে কোনও বিশেষ চুক্তি হতে পারে লা লিগার । এই বৈঠকে তাঁর সঙ্গে থাকবেন ইস্টবেঙ্গল, মোহনবাগান, মহামেডান স্পোর্টিংয়ের ক্লাবকর্তারাও। এছাড়াও থাকার কথা  সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়েরও।যদিও তিনি এই মুহূর্তে লন্ডনে রয়েছেন লন্ডনে,সেখান থেকেই ১৪ তারিখ সরাসরি মাদ্রিদ পৌঁছবেন বলে খবর।

এরপর স্পেনে মমতার লক্ষ্য রাজ্যের জন্য বিনিয়োগ টানা। রাজ্যে বিদেশি লগ্নি বাড়াতে তিনি সঙ্গে বড় প্রতিনিধিদল নিয়ে স্পেনে গিয়েছেন।প্রতিনিধিদলে রয়েছেন ময়দানের তিন ফুটবল ক্লাবের কর্তা, বই প্রকাশকদের একটি দল। এদিন সকালের বিমানে মুখ্যমন্ত্রী-সহ প্রতিনিধিদলটি প্রথমে যাবেন দুবাই। সেখানে প্রায় ১৮ ঘণ্টার বিরতি। তারপর দুবাই থেকে স্পেনের উদ্দেশে রওনা দেবেন। স্পেন পৌঁছবেন বুধবার। মাদ্রিদ, বার্সেলোনা শহরে যাওয়ার কথা মুখ্যমন্ত্রীর। সেখানকার ফুটবল ক্লাব ও বিভিন্ন শিল্প সংস্থার সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক রয়েছে। লক্ষ্য একটাই, রাজ্যের জন্য বিদেশি লগ্নির রাস্তা আরও প্রশস্ত করা।

 বিদেশ যাওয়ার আগে সোমবার মুখ্যমন্ত্রী নবান্নে বৈঠক করে জানিয়েছেন, তিনি ৫ বছর পর বিদেশ যাচ্ছেন। কারণ, এতদিন তাঁর বিদেশ যাওয়ার অনুমতি মেলেনি। এও জানান, খুব বেশি দূরে যাচ্ছেন না। যাতে রাজ্যের কোনও জরুরি প্রয়োজন হলে চটজলদি ফিরে আসতে পারেন। যদিও স্পেন থেকে লগ্নি টানার লক্ষ্যে একাধিক কর্মসূচিতে ব্যস্ত থাকলেও নবান্নের নিয়ন্ত্রন তাঁর হাতেই থাকবে বলে জানিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। সঙ্গে থাকবেন মুখ্যসচিব এইচ কে দ্বিবেদী। সোমবার সাংবাদিক বৈঠকে তিনি নিজেই জানান, স্পেন থেকে রোজ দু’বেলা প্রেস বিবৃতি দিয়ে রোজকার খবরাখবর জানাবেন।

খবরটি শেয়ার করুণ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন


কার্বন নিঃসরণ দ্রুত শেষ করার জন্য G7 ঐক্যমত

উত্তরাপথ: বিশ্বের সাতটি ধনী দেশের শক্তি ও পরিবেশ মন্ত্রীরা সম্প্রতি  জ্বালানি এবং পরিবেশগত ইস্যুতে উত্তর জাপানের শহর সাপোরোতে বৈঠক করেন।  G-7 বৈঠকে জড়ো হওয়া বিভিন্ন দেশের আধিকারিকরা তাদের প্রতিশ্রুতির রূপরেখা দিয়ে একটি কমিউনিক জারি করেছে। বৈঠকে বর্তমান সঞ্চিত জ্বালানি সংকট এবং ভবিষ্যৎ অর্থনৈতিক উন্নয়নকে সমান গুরুত্ব দিয়ে, আগামী ২০৫০ সালের মধ্যে নেট-জিরো গ্রিনহাউস গ্যাস (GHG) নির্গমনের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে। সমস্ত নেতারা দক্ষ, সাশ্রয়ী মূল্যের এবং দূষণ মুক্ত শক্তির উৎস সন্ধানের গুরুত্বকে স্বীকৃতি দিয়েছে। এর আগেও .....বিস্তারিত পড়ুন

Scroll to Top