এবার চাঁদের পথে জাপান, অবতরণে সময় লাগতে পারে ছয় মাস

চাঁদের পথে জাপান ছবি – সংগৃহীত

উত্তরাপথঃ এ যেন হঠাৎ করে শুরু হওয়া বিভিন্ন দেশগুলির মধ্যে চাঁদে যাওয়ার প্রতিযোগিতা। ভারতের পর এবার চাঁদের পথে পারি দিল জাপান । চাঁদের জন্য SLIM নামে  তাদের নিজস্ব মুন ল্যান্ডার উৎক্ষেপণ করেছে জাপান।  মহাকাশযানটি ৭ সেপ্টেম্বর জাপানের স্থানীয় সময় সকাল ৮.৪২মিনিটে উৎক্ষেপণ করা হয়।  এটিতে জাপানের নিজস্ব  H2A রকেট ব্যবহার করা হয়েছে। এই মহাকাশ যানটি  তানেগাশিমা স্পেস সেন্টার থেকে উৎক্ষেপণ করা হয়েছে। প্রসঙ্গত দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে জাপান এটিকে নির্দিষ্ট সময়ের চেয়ে ১০ দিন দেরিতে উৎক্ষেপণ করল। মহাকাশযান SLIM ছাড়াও একটি মহাকাশ টেলিস্কোপও পাঠিয়েছে জাপান।উভয় মহাকাশযান এক ঘন্টার মধ্যে তাদের নির্দিষ্ট পথে পৌঁছেছে।  সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ‘স্মার্ট ল্যান্ডার ফর ইনভেস্টিগেটিং মুন’ (SLIM) প্রায় চার মাস পর চাঁদে অবতরণ করবে।

জাপান সফল হলে চাঁদে যাওয়া পঞ্চম দেশ হবে।জাপান অ্যারোস্পেস এক্সপ্লোরেশন এজেন্সি (JAXA) বলেছে যে SLIM-এর লক্ষ্য হল এমন যন্ত্র তৈরি করা যার ক্ষমতা বেশি হবে, কিন্তু আকার ও ওজনে ছোট হবে। এটি সৌরজগতের অন্যান্য মিশন পরিচালনায় কাজ করবে এর পাশাপাশি চাঁদে যাওয়ার জন্য পিনপয়েন্ট ল্যান্ডিং প্রযুক্তি খুঁজে বের করবে। চাঁদে পৌঁছাতে এর সময় লাগবে চার মাস । এরপর SLIMঅত্যাধুনিক অপটিক্যাল ও ছবি প্রসেস করার প্রযুক্তি আবিষ্কার করবে এছাড়াও চাঁদে পাথরের মধ্যে ধাতব খনিজের সন্ধান করবে। এই SLIM এর সাথে কোনও রোভার থাকছেনা।

SLIM একটি ছোট মহাকাশযান, যার উচ্চতা ২.৪ মিটার, দৈর্ঘ্য ২.৭মিটার এবং প্রস্থ ১.৭ মিটার ।  টেক অফের সময় এর ওজন ছিল ৭০০কেজি ।  কিন্তু এর ওজনের ৭০ শতাংশই ছিল জ্বালানি ।  যেখানে চন্দ্রযান-৩ অভিযানের মোট ওজন ছিল ৩৯০০ কেজি ।  যার মধ্যে রয়েছে ২১৪৮কেজি প্রোপালশন মডিউল, ১৭৫২ল্যান্ডার এবং ২৬ কেজি রোভার ।  SLIM চাঁদে একটি দীর্ঘ লুপিং এবং কম জ্বালানী পথ নেবে, চন্দ্র কক্ষপথে পৌঁছাতে তিন থেকে চার মাস সময় লাগবে।

চাঁদের কক্ষপথে পৌঁছানোর পরও তা অবিলম্বে অবতরণ করবে না ।  এটি এক থেকে দুই মাস চন্দ্র পৃষ্ঠের উপর নজর রাখবে ।  তারপরে এটি শিওলি ক্রেটারের ভিতরে অবতরণ করার চেষ্টা করবে, এটি একটি ৩০০-মিটার গভীর গর্ত যা চাঁদের কাছাকাছি ১৩ ডিগ্রি দক্ষিণ অক্ষাংশে অবস্থিত ।  এই মিশনের সবচেয়ে বড় লক্ষ্য হল নির্দিষ্ট স্থানে অবতরণ করা ।  SLIM ১০০ মিটার এলাকায় অবতরণ করবে, যা পূর্ববর্তী ল্যান্ডারের তুলনায় আরো নির্ভুল হবে ।  এ কারণে একে স্নাইপারও বলা হচ্ছে ।  জাপানের এই সাফল্য নাসার চাঁদ অভিযানে বড় ভূমিকা রাখবে ।

খবরটি শেয়ার করুণ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন


২০২৪ কি গণতন্ত্রের সবচেয়ে বড় বছর হতে চলেছে ?

উত্তরাপথঃ ২০২৪ কি গণতন্ত্রের সবচেয়ে বড় বছর হতে চলেছে ?এটি মানব ইতিহাসের একটি উল্লেখযোগ্য মাইলফলক হতে চলেছে। এই বছর চার বিলিয়নেরও বেশি মানুষ ৪০টিরও বেশি দেশে নির্বাচনে অংশ নেবে যা বিশ্বের জনসংখ্যার অর্ধেকেরও বেশি । যুক্তরাষ্ট্র, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, রাশিয়া, পাকিস্তান, তাইওয়ান, মেক্সিকো এবং দক্ষিণ আফ্রিকায় জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে (বাংলাদেশে সদ্য শেষ হয়েছে ২০২৪ এর নির্বাচন)। নির্বাচনের এই ব্যস্ত ক্যালেন্ডারে ইউরোপীয় ইউনিয়নও নির্বাচনে অংশ নেবে।আধুনিক বিশ্বে জনগণকে শাসন করার জন্য প্রভাবশালী সাংগঠনিক নীতি হিসাবে গণতন্ত্রের  কথা বলা হলেও ভালো করে বিবেচনা করলে দেখা যাবে গণতন্ত্র অনেক ক্ষেত্রেই ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের জন্য ভারতীয় রাজনীতিতে একটি শব্দ বার বার উঠে আসছে তা হল ‘হিন্দুত্ব’। এই একটি শব্দ যাকে প্রায় জাতীয়তাবাদের সমর্থক শব্দ হিসাবে প্রচার করা হচ্ছে। হিন্দুত্ব, একটি আদর্শ হিসাবে, ২০ শতকের গোড়ার দিকে আবির্ভূত হয় এবং রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ (আরএসএস) এবং এর রাজনৈতিক শাখা ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) ও  শিবসেনার  মতো সংগঠনগুলির প্রচেষ্টার মাধ্যমে ‘হিন্দুত্ব’ ভারতীয় রাজনীতিতে প্রধান্য লাভ করে। .....বিস্তারিত পড়ুন

বিশ্বের সর্বোচ্চ আগ্নেয়গিরির পর্বত শৃঙ্গ জয় শেখ হাসান খানের

উত্তরাপথঃপর্বতগুলি দীর্ঘকাল ধরে দুঃসাহসিক চ্যালেঞ্জের প্রতিমূর্তি হয়ে উঠেছে, যা মানুষের সামর্থ্যের সীমানা অতিক্রম করতে চাওয়া দুঃসাহসিকদের আত্মাকে মোহিত করে।এমনই এক মানুষ হলেন শেখ হাসান খান। তিনি বিশ্বের সর্বোচ্চ আগ্নেয়গিরির পর্বত শৃঙ্গ 'ওজোস দেল সালাডো' জয় করেছেন ।এই পর্বতের উচ্চতা ২২,৬০০ ফুটের বেশি এবং এই চূড়ায় আরোহণ করে শেখ হাসান খান দেশের গর্ব বাড়িয়েছেন।'ওজোস দেল সালাডো' বিশ্বের সপ্তম সর্বোচ্চ শৃঙ্গ এবং চিলির সর্বোচ্চ শৃঙ্গ।শেখ হাসান উচ্চ পর্বতের চূড়া জয় করার জন্য পরিচিত, শেখ কেরালা রাজ্যের একজন কর্মচারী।  তিনি দক্ষিণ আমেরিকার সর্বোচ্চ শৃঙ্গ মাউন্ট অ্যাকনকাগুয়া আরোহণ করেন।  এর আগে খান ডিসেম্বরে অ্যান্টার্কটিকার সর্বোচ্চ শৃঙ্গ মাউন্ট ভিনসন জয় করেছিলেন।এর বাইরে আরও তিনটি সর্বোচ্চ শৃঙ্গ জয় করেছেন তিনি।  এর মধ্যে রয়েছে মাউন্ট এভারেস্ট (এশিয়া), মাউন্ট ডেনালি (উত্তর আমেরিকা), মাউন্ট কিলিমাঞ্জারো।  বিশ্বের সর্বোচ্চ আগ্নেয় পর্বত জয়ের পর শেখ বলেছিলেন, আমি আমার বুকে 'জলবায়ু পরিবর্তনই বাস্তব' স্লোগান লিখে রেখেছি। .....বিস্তারিত পড়ুন

নতুন ফাইটার জেটকে সহায়তা করার ড্রোনের জন্য জন্য জাপান ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র AI গবেষণায় সম্মত হয়েছে

জাপান এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ড্রোনের জন্য কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার উপর যৌথ গবেষণা শুরু করতে সম্মত হয়েছে । তাদের আশা এই উন্নত প্রযুক্তির  ব্যবহার এশিয়ান দেশের পরবর্তী ফাইটার জেটের সাথে তাল মিলিয়ে কাজ করবে।জাপান ২০৩৫ সালের মধ্যে ব্রিটেন এবং ইতালির সাথে একটি পরবর্তী প্রজন্মের ফাইটার এয়ারক্রাফ্ট তৈরি করার পরিকল্পনা করেছে। যদিও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জাপানের প্রধান নিরাপত্তা মিত্র, এই ফাইটার জেট প্রকল্পের অংশ নয়। জাপান এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের যৌথ AI অধ্যয়নের উদ্দেশ্য হল "অত্যাধুনিক কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা এবং উন্নত মনুষ্যবিহীন বিমান যানের সাথে মেশিন লার্নিং একত্রিত করে বায়ুবাহিত যুদ্ধে বিপ্লব ঘটানো," মার্কিন বিমান বাহিনী গত মাসে  চুক্তি স্বাক্ষরের পর জারি করা একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানিয়েছে । "এই যৌথ গবেষণায় বিকশিত AI জাপানের পরবর্তী ফাইটার এয়ারক্রাফ্টের পাশাপাশি চালিত ইউএভিতে প্রয়োগ করা হবে বলে আশা করা হচ্ছে "।  এটি জোর দিয়ে বলেছে যে সহযোগিতাটি জাপান-মার্কিন জোটের "প্রযুক্তিগত সুবিধা" বজায় রাখার জন্য কার্যকরী হবে। জাপান এবং মার্কিন সমন্বয়ে তৈরি ড্রোনগুলি যুদ্ধবিমানগুলির কাছাকাছি উড়ে ডেটা সংগ্রহ করতে ব্যবহার করা যাবে বলে আশা করা হচ্ছে। .....বিস্তারিত পড়ুন

 স্কুল ব্যাগের অতিরিক্ত ওজনের কারণে পড়ে গিয়ে মৃত্যুর মুখে ছাত্রী

উত্তরাপথঃ একটি হৃদয় বিদারক ঘটনা সম্প্রতি খবরের শিরোনামে আসে  পিঠে বইয়ের ভারি ব্যাগ নিয়ে স্কুলের পাঁচতলার সিঁড়ি থেকে বিপজ্জনক ভাবে পড়ে গুরুতর জখম হল এক ছাত্রী। লিলুয়ার অগ্রসেন বালিকা শিক্ষাসদনের দশম শ্রেণির ছাত্রী প্রিয়াঙ্কা ভঞ্জচৌধুরী এখন আশঙ্কাজনক অবস্থায় কলকাতার আলিপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। মঙ্গলবার তার মেরুদণ্ডে বড়সড় অস্ত্রোপচার হয়েছে। কয়েকদিন না গেলে সঙ্কট কেটেছে কি না তা বলা সম্ভব নয় বলেই হাসপাতাল সূত্রে জানানো হয়েছে। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি একটি প্রতীকী ঘটনা মাত্র। এর আগেও  স্কুল ব্যাগের অতিরিক্ত ওজন নিয়ে অনেক বিতর্ক হয়েছে এক্ষেত্রে সরকার ভারতের স্কুল ব্যাগ নীতি ২০২০,  এই সমস্যাটিকে সমাধানের লক্ষ্যে ঘোষণা করেছে এবং তাতে বেশ কিছু নির্দেশিকা দিয়েছে। এই নির্দেশিকায় - ১। প্রথম থেকে দশম শ্রেণী পর্যন্ত, স্কুলব্যাগের ওজন শিক্ষার্থীদের মোট শরীরের ওজনের ১০% এর বেশি হওয়া উচিত নয়। ২। প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের স্কুলে ব্যাগ বহন করা উচিত নয়। ৩। দ্বিতীয় শ্রেণি পর্যন্ত, শিক্ষকদের সুপারিশ করা হয়েছে যে শিক্ষার্থীদের হোমওয়ার্ক না দেওয়ার জন্য। .....বিস্তারিত পড়ুন

Scroll to Top