চম্পারন মাটন রাজনীতি কি কোনও নতুন সমীকরণ তৈরি করবে

উত্তরাপথঃ সামনে ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচন ,আর সেই নির্বাচনকে ঘিরে তৈরি হয়েছে INDIAজোট। মুম্বাইতে বিরোধী INDIA জোটের (ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্টাল ইনক্লুসিভ অ্যালায়েন্স) তৃতীয় বৈঠকের একদিন পরে, কংগ্রেস শনিবার রাহুল গান্ধীর লালু প্রসাদ যাদব এবং তার পরিবারের সদস্যদের সাথে দিল্লিতে দেখা করার একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে যেখানে তাদের চম্পারন মাটন দিয়ে রান্না এবং রাজনীতি নিয়ে আড্ডা দিতে দেখা যাচ্ছে।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, রাহুল গান্ধী প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর জন্যও মাটন চাইছেন যা প্রিয়াঙ্কা বাড়িতে উপভোগ করেন এবং সন্দেহ করেছিলেন যে রাহুল সত্যিই মাটন রান্না করেছেন কিনা। “সবাই করেছে। আমি রান্না করেছি, লালুজি রান্না করেছে, মিসা রান্না করেছে,” রাহুল বলল। “তাহলে আপনি গ্রুপ রান্না করেছেন? খুব সুন্দর,” প্রিয়াঙ্কা গান্ধী চাপাতির টুকরো দিয়ে চম্পারন মাটন-এ কামড় নিয়ে বললেন।

মাংসটি বিহার থেকে আনা হয়েছিল, লালু প্রসাদ যাদব বলেছিলেন যে রাহুল গান্ধী মিসা ভারতীর নির্দেশে মাটন ম্যারিনেট করেছিলেন। খাবার নিয়ে আড্ডায় লালু যাদব বলেন, তিনি থাই খাবার পছন্দ করেন। এই বিষয়ে রাহুল গান্ধী বলেন, প্রিয়াঙ্কা ভালো থাই সালাদ সোম ট্যাম তৈরি করেন যা ‘রাজনীতির মতো’ অনেক কিছুর মিশ্রণ। রাহুল গান্ধী বলেন, “আমি লালুজিকে খুব তীক্ষ্ণ মনে করি। আমি লালুজির রাজনৈতিক বুদ্ধিমত্তাকে সম্মান করি।”

ভিডিওটিতে রাহুল গান্ধী লালু প্রসাদ যাদবকে প্রশ্ন করেছিলেন, “রাজনীতির মশলা কী? লালু প্রসাদ যাদব বলেন, “লড়াই করুন, অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়াই করুন। এটাই রাজনীতির মশলা।রাহুল গান্ধী রান্না করতে পারেন কিনা জানতে চাওয়া হলে, তিনি বলেছিলেন যে তিনি ইউরোপে একা থাকার সময় মৌলিক রান্না শিখেছিলেন কিন্তু একজন বিশেষজ্ঞ নন।

লালুজি, ১৫- ২০ বছরে বিজেপির ঘৃণা ছড়ানোর কারণ কী?” বললেন রাহুল গান্ধী। লালু প্রসাদ যাদব বলেন, “রাজনৈতিক ক্ষুধা এমন একটা জিনিস যা কখনো মেটে না।” যখন অর্থনীতি ভালো করছে, তখন ঘৃণার বিস্তার সীমিত। এবং যখন অর্থনৈতিক অবস্থা খারাপ হয়, তখন তা (ঘৃণার বিস্তার) বেড়ে যায়। এখনকার মতো, অর্থনৈতিক অবস্থা খারাপ এবং ঘৃণা ছড়াচ্ছে,”।  রাহুল গান্ধী “মেওয়াতে যা ঘটেছে, মানুষ বিশাল ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। সবকিছু বন্ধ, স্কুল বন্ধ”।

এরপর দেখা যাচ্ছে বিহারের উপ-মুখ্যমন্ত্রী তেজস্বী যাদব যিনি পারিবারিক সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন তিনিও বলছেন। “আপনার বাবা-মা এবং দাদা-দাদি দেশকে একটি সৎ পথে নিয়ে গেছেন। আজকের প্রজন্মের এটি ভুলে যাওয়া উচিত নয়,” রাহুল গান্ধী রাজনৈতিক পরামর্শ চেয়েছিলেন বলে লালু প্রসাদ যাদব বলেন।‘

এই ভিডিও সামনে আসার কয়েক দিন পর বিহারের মুখমন্ত্রী নিতীশ কুমার যিনি INDIAজোটের একজন অন্যতম শরীক তার একটি ছবি সামনে আসে সেখানে নিতীশ কুমারকে প্রধানমন্ত্রী মোদীর সাথে জি-২০ বৈঠকে রাষ্ট্রপতির দেওয়া নৈশভোজে বিদেশী অতিথিদের সাথে হাসি মুখে দেখা যাচ্ছে। নিতীশের এই ছবি রাহুলের ভিডিওর পাল্টা কিনা তা সময় বলবে।  

খবরটি শেয়ার করুণ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন


পশ্চিমবঙ্গে 'দ্য কেরালা স্টোরি'সিনেমাটির ভাগ্য সুপ্রিম কোর্টের হাতে

উত্তরাপথ: 'দ্য কেরালা স্টোরি' সিনেমাটি পশ্চিমবঙ্গে নিষিদ্ধ হওয়ায় সিনেমাটির সিনেমার নির্মাতারা বাংলার নিষেধাজ্ঞাকে সুপ্রিম কোর্টে চ্যালেঞ্জ করেছিলেন। তাদের দাবী ছিল নিষেধাজ্ঞার ফলে প্রতিদিন তাদের আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হচ্ছে । নির্মাতাদের আবেদনের ভিত্তিতে সুপ্রিম কোর্ট আজ 'দ্য কেরালা স্টোরি' সিনেমাটি পশ্চিমবঙ্গে নিষিদ্ধ হওয়ার পিছনে যুক্তি জানতে চেয়েছে । প্রধান বিচারপতির একটি বেঞ্চ পর্যবেক্ষণ করেছে, যখন এটি কোনও সমস্যা ছাড়াই সারা দেশে চলছে।পশ্চিমবঙ্গের সিনেমাটি কেন নিষিদ্ধ করা উচিত? এটি একই রকম জনসংখ্যার সংমিশ্রণ রয়েছে এম .....বিস্তারিত পড়ুন

শালডিহা কলেজের ছাত্রীদের জন্য বিশেষ সার্টিফিকেট কোর্স

উত্তরাপথঃ বাঁকুড়া জেলার শালডিহা কলেজের রসায়ন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডঃ সমীর কুমার মণ্ডল এর উদ্যোগে এবং Mahindra Group - এর Mahindra Pride Classroom ও Naandi Foundation -এর যৌথ উদ্দগ্যে শুধু মাত্র ছাত্রীদের জন্য ৭ দিনের (৪০ ঘন্টা) একটি সার্টিফিকেট course -এর আয়োজন করা হয়েছিল। বিভিন্ন রকম স্কিল নিয়ে বিশদে শিক্ষা দেওয়া হয়েছিল। যার মধ্যে হল communication skill, soft skill, life skill, presentaion skill ও interview skill ইত্যাদি। Mohindra Educator -এর ভূমিকাই আসেন সরোজ রাই। তিনি মনে করেন, এই জাতীয় প্রশিক্ষণ শালডিহার মতো প্রান্তিক কলেজের মেয়েরা খুবই উপকৃত হবে। কলেজ কর্তৃপক্ষ আশা করে ভবিষ্যতে মাহিন্দ্রা গ্রুপ এই কলেজে ক্যাম্পাসিং এর .....বিস্তারিত পড়ুন

রাষ্ট্রীয় নৈশভোজে ২২ জুন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যাবেন মোদী

উত্তরাপথ: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আগামী মাসের ২২ তারিখে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন একটি রাষ্ট্রীয় নৈশভোজে যোগ দিতে।এই নৈশভোজে মোদীকে রাষ্ট্রপতি জো বিডেন এবং ফার্স্ট লেডি জিল বিডেন আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।এই সফরে মূলত দ্বিপাক্ষিক কৌশলগত সম্পর্কের ক্রমবর্ধমান গুরুত্বের উপর জোর দেওয়া হবে এবং একটি মুক্ত ইন্দো-প্যাসিফিক সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।   MEA বলেছে যে মোদী এবং বিডেন G20 সহ প্লুরি-পার্শ্বিক এবং বহুপাক্ষিক ফোরামে ভারত-মার্কিন সহযোগিতা জোরদার করার উপায়গুলিও .....বিস্তারিত পড়ুন

সম্পাদকীয়

এ যেন বহুদিন পর বিজেপির চেনা ছন্দের পতন। হিমাচল প্রদেশের পর কর্ণাটক কংগ্রেস নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে বিজেপির বিজয়রথকে থামিয়ে দিল ।২০১৮ পর থেকে লাগাতার হারতে থাকা একটি দল আবার ২০২৪ সাধারণ নির্বাচনে প্রাসঙ্গিক হয়ে গেল । ২২৪ সদস্যের কর্ণাটক বিধানসভায় সরকার গঠন করতে গেলে প্রয়োজন ১১৩টি আসন সেখানে কংগ্রেস একাই পেয়েছে ১৩৬টি আসন, বিজেপি পেয়েছে ৬৫ টি এবং প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী দেবগৌড়ার জেডিএস পেয়েছে ১৯টি এবং অন্যান্য ৪ টি আসন পেয়েছে। যা গতবারের তুলনায় বিজেপির ৩৯ টি আসন কমেছে এবং কংগ্রেসের বেড়েছে ৫৭টি আসন এবং জেডিএসের কমেছে ১৮ টি আসন।   কর্ণাটকে কংগ্রেসের এই সাফল্য কি রাজ্যে কংগ্রেসের শক্তিশালী সংগঠনের ফল না কি কর্ণাটকের আগের ক্ষমতাশীল বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে মানুষের ক্ষোভ । কর্ণাটকে কংগ্রেসে অনেক বড় নেতা রয়েছে।  প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি শিবকুমার দক্ষ সংগঠক। আগের মুখ্যমন্ত্রী সিদ্ধারামাইয়ার ব্যাপক জনভিত্তি রয়েছে।  ভোটের আগে বিজেপির প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জগদীশ শেট্টার এবং উপমুখ্যমন্ত্রী সাভাড়ি কংগ্রেসে যোগ দিয়ে নির্বাচনে লড়েছেন। অন্যদিকে বিজেপির প্রচারের সবচেয়ে বড় মুখ ছিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। বিজেপির প্রচারে সব নেতারাই মোদীর নাম করেই ভোট চেয়েছিলেন কিন্তু শেষ রক্ষা হল না ।কর্ণাটকের বিজেপি সরকারের ব্যাপক দুর্নীতি সেই সাথে কংগ্রেসের লাগাতার প্রচার যা প্রতিষ্ঠান বিরোধিতার সুরকে আরও তীব্র করেছে। তাই শুধুমাত্র মোদী ম্যাজিকের উপর ভর করে নির্বাচন জেতা যে  আর বিজেপির পক্ষে সম্ভব নয় কর্ণাটকের জনগণ চোখে হাত দিয়ে তাই দেখিয়ে দিল। .....বিস্তারিত পড়ুন

Scroll to Top