বিশ্বকাপের আয়োজনে দেশজুড়ে সাজ সাজ রব

উত্তরাপথ

এই প্রথম বার এককভাবে ওডিআই বিশ্বকাপ আয়োজন করবে ভারত। বিশ্বকাপ আয়োজনে কোনওরকম ফাঁক রাখতে চাইছে না বিসিসিআই। দেশজুড়ে তাই সাজ সাজ রব।  আইসিসি ওডিআই বিশ্বকাপের সূচি ঘোষণা করে দিয়েছে । হাতে আর মাত্র তিনমাস বাকি। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের কর্তাদের ব্যস্ততা তুঙ্গে। যে ১০টি স্টেডিয়ামে ম্যাচ খেলা হবে সেগুলি সংস্কারের কাজ চলছে জোর কদমে। প্রতিটি স্টেডিয়ামকে সংস্কারের জন্য টাকা দিয়েছে বোর্ড। জানা গেছে বিশ্বকাপের আগে স্টেডিয়াম সংস্কারের জন্য প্রতিটি স্টেডিয়ামকে ৫০ কোটি টাকা দেওয়া হবে। যে স্টেডিয়ামের যা প্রয়োজন সেই হিসেবে কাজ চলছে। যেমন মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে নতুন ফ্লাডলাইট  কর্পোরেট বক্সের প্রয়োজন, লখনউ স্টেডিয়ামে পিচ, ইডেন গার্ডেন্সে ড্রেসিংরুম আপগ্রেড, ধরমশালায় বিদেশ থেকে আমদানি করা ঘাসের আউটফিল্ড, পুনে স্টেডিয়ামে অস্থায়ী ঘর এবং অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামের টিকিটিং সিস্টেম এবং শৌচাগারের সংস্কার।

বিশ্বকাপের ম্যাচগুলি খেলা হবে আমেদাবাদ, চেন্নাই, মুম্বই, ধরমশালা, দিল্লি, পুনে, বেঙ্গালুরু, হায়দরাবাদ, লখনউ এবং কলকাতায়। গুয়াহাটি ও তিরুবনন্তপুরমে খেলা হবে ওয়ার্ম আপ ম্যাচগুলি। ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়াম আয়োজন করবে লিগ পর্বের চারটি ম্যাচ এবং সেমিফাইনাল। স্টেডিয়ামে ফ্লাডলাইট ছাড়া কর্পোরেট বক্স ও শৌচাগার সংস্কারের প্রয়োজন রয়েছে। চেন্নাইয়ে দুটি লাল মাটির পিচ এবং নতুন এলইডি লাইট বসানো হবে। ধরমশালা স্টেডিয়াম সংস্কারের কাজ শেষ না হওয়ায় ভারত-অস্ট্রেলিয়া বর্ডার গাভাসকর ট্রফির ম্যাচ আয়োজন করা সম্ভব হয়নি। তবে বিশ্বকাপে ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচ-সহ পাঁচটি ম্যাচ আয়োজন করবে ধরমশালা স্টেডিয়াম। ৬০০০ মিটারের নতুন ড্রেনেজ সিস্টেম বিশেষ করে পাইপ বসানো হয়েছে। যাতে বৃষ্টি হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই ম্যাচ শুরু করার জন্য মাঠ প্রস্তুত করা যায়

খবরটি শেয়ার করুণ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন


কৃষ্ণগহ্বরের "ছায়া" ও "ছবি"

ড. সায়ন বসু: ১৭৮৩ সালে ভূতত্ত্ববিদ জন মিচেল (John Michell) ‘ডার্ক স্টার’ (dark stars) শিরোনামে একটি গবেষণা নিবন্ধ প্রকাশ করেন। তার গবেষণা পত্রের বিষয়বস্তু ছিল "বিপুল পরিমাণ ভর বিশিষ্ট কোন বস্তু যার মহাকর্ষের প্রভাবে আলোক তরঙ্গ পর্যন্ত পালাতে পারে না"। এখান থেকেই মূলত কৃষ্ণগহ্বরের (Black Hole) ধারণা আসে এবং এটি নিয়ে গবেষনা ও অনুসন্ধান শুরু হয়। পরবর্তিতে অবশ্য এটি বিজ্ঞান মহলে একটি অযৌক্তিক তত্ত্ব হিসেবে বেশ অবহেলার স্বীকার হয়। আলোর মত কোন কিছু বেরিয়ে আসতে পারবে না এমন একটি তত্ত্ব বিজ্ঞানীদের কাছে বেশ অযৌক্তিক মনে হয়েছিল। তাই ধীরে ধীরে থেমে যায় কৃষ্ণগহ্বর নিয়ে গবেষনা। .....বিস্তারিত পড়ুন

২০২৩ নির্বাচন কি সত্যি ২০২৪ এর সেমিফাইনাল ?

উত্তরাপথ: ২০২৩ নির্বাচন কি সত্যি ২০২৪ এর সেমিফাইনাল ? না  কি কংগ্রেসের কাছে আবার একটু - একটু  করে ঘুরে দাঁড়াবার প্রচেষ্টা এবং বিজেপির কাছে মোদী ম্যাজিক যে এখনও অব্যাহত সেটা প্রমান করা। বিজেপির এখন প্রচারের একমাত্র মুখ নরেন্দ্র মোদী। সদ্য সমাপ্ত কর্ণাটক নির্বাচনের পুরো প্রচার হয়েছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে কেন্দ্র করে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ, বিজেপির জাতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা সহ মুখ্যমন্ত্রী বাসভরাজ বোমাই নিজেও প্রধানমন্ত্রী মোদির নামে ভোট চাইলেন। তার  উপরে, প্রধানমন্ত্রী মোদি নিজে .....বিস্তারিত পড়ুন

Scroll to Top