সরকারি চাকরিতে দুর্নীতি  ছিল, আছে  এবং  থাকবে

উত্তরাপথ

ছবি সৌজন্য : এইচ টি

সরকারি চাকুরি ও নিয়োগ দুর্নীতি একে অপরের পরিপূরক। আমাদের দেশের সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোতে নিয়োগের একই দৃশ‍্য। সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলিতে  নিয়োগ প্রায় নেই-ই। যদিও  কোথাও সামান্য  কিছু নিয়োগ হচ্ছে তাতে পর্বত প্রমাণ দুর্নীতি। পশ্চিমবঙ্গের প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ, ডাব্লুবিসিএস অফিসার পদে নিয়োগ, পঞ্চায়েত কর্মী সহ আশা কর্মী নিয়োগ, গ্রুপ সি কর্মচারী নিয়োগ সর্বত্র সরকারি চাকরিতে দুর্নীতির অভিযোগ সম্প্রতি এসএসসি র নিয়োগ দুর্নীতি এর ব্যতিক্রম নয়। দুর্নীতির এই তালিকা প্রতিদিন দীর্ঘ থেকে  দীর্ঘতর হচ্ছে। এখনো পযর্ন্ত  এসএসসিতে প্রায় ৩৫০ কোটি টাকার লেনদেন  হয়েছে বলে খবর। এর আগে বাম আমলেও সরকারি চাকুরীতে  নিয়োগে বহু  দুর্নীতি হয়েছে। তবে পার্থক্য একটাই  তৃণমূল আমলে দুর্নীতির মূল কথাই হল ফেলো  কড়ি, নাও  চাকুরি। কিন্ত বাম আমলে বেশিরভাগ  সরকারি চাকুরি  সংরক্ষিত ছিল তাদের পাটি ক‍্যাডারদের জন‍্য। এক একটি পরিবার থেকে দুই /তিন জন করে কমরেড সরকারি চাকুরি হস্তগত করতেন। তারপর বাকি ক্ষেত্রে ফেলো কড়ি, নাও  চাকরি। সম্প্রতি ‘স‍্যাট’  এর একটি রিপোর্ট সামনে এসেছে  সেখানে বাম আমলে খাদ্য দপ্তরে ৬১৪ জন  কর্মী নিয়োগে দুর্নীতি হয়েছে বলে উল্লেখ রয়েছে।

নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ শুধু বাংলায় নয় সর্বভারতীয় স্তরে নিয়োগের ক্ষেত্রেও রয়েছে। সাধারণ চাকরি তো বটেই, দুর্নীতির স্পর্শ এড়াতে পারছেনা  বিশ্ববিদ্যালয়, গবেষণাকেন্দ্র, সেনাবাহিনী  সহ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের মতো সংস্থাগুলো। মধ‍্যপ্রদেশের ব‍্যাপম  কেলেঙ্কারি,  এছাড়াও পাঞ্জাব, আসাম, জম্মু, রাজস্থান সহ প্রায় সমস্ত রাজ‍্যে  নিয়োগে দুর্নীতির ঘটনা সামনে আসছে। সম্প্রতি  অরুনাচল প্রদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের চাকরিতে সরাসরি  আর্থিক লেনদেনের  অভিযোগে সিবিআই  এফআইআর দায়ের করেছে। রেলের ক্ষেত্রেও  এই ধরনের  অভিযোগ প্রায়ই ওঠে।  নিয়োগ প্রক্রিয়াতে কখনও  অর্থ, কখনও  স্বজন পোষণ  আবার কখনও দলীয় পক্ষপাত যা ঘিরে তৈরী হচ্ছে  আইনি জট এবং ব‍্যহত হচ্ছে নিয়োগ প্রক্রিয়া, ফলে কর্মসংস্থান অধরাই থাকছে  শিক্ষিত বেকারদের।

যদিও সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোতে কোনও  দুর্নীতির  অভিযোগ মানতে  নারাজ  কেন্দ্র  ও  রাজ‍্য উভয়  সরকারই।  প্রশ্ন করলে কেন্দ্র, রাজ‍্য সরকারগুলোর দুর্নীতির প্রসঙ্গ তোলে আর রাজ‍্য কেন্দ্র বা অন্য  রাজ্যগুলোর দুর্নীতির তথ‍্য সামনে আনবে। এইভাবে বছরের পর বছর  নিয়োগ বন্ধ। লাখ লাখ শিক্ষিত যুবক -যুবতী উপযুক্ত কর্ম সংস্থানের অভাবে বসে আছে। তাদের জীবন থেকে একের পর এক মূল‍্যবান বছর চলে যাচ্ছে। কর্মসংস্থানকে কেন্দ্র করে তৈরী হচ্ছে  অসন্তোষ। বিভিন্ন রাজ্যে চাকরি প্রার্থীদের ক্ষোভ এখন রাস্তায় এসে পড়েছে। ন‍্যায় বিচারের আশায় তারা আদালতে যাচ্ছে। বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় মতো বিচারপতিরা লাখ লাখ চাকরি প্রার্থীদের একমাএ ভরসার জায়গা। তবে যে  সংখ্যক  চাকুরি  প্রার্থী ন‍্যায়বিচার পাচ্ছে সেই সংখ্যাটা খুবই সামান্য। সারা দেশের ক্ষেত্রে হিমশৈলের চূড়া মাত্র। রাজনৈতিক দলগুলো ক্ষমতাই আসার আগে দুর্নীতির বিরুদ্ধে যতই  তাদের আপসহীন মনোভাব দেখাক সরকারি চাকরিতে দুর্নীতি  ছিল, আছে  এবং  থাকবে।

খবরটি শেয়ার করুণ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন


রাষ্ট্রীয় নৈশভোজে ২২ জুন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যাবেন মোদী

উত্তরাপথ: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আগামী মাসের ২২ তারিখে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন একটি রাষ্ট্রীয় নৈশভোজে যোগ দিতে।এই নৈশভোজে মোদীকে রাষ্ট্রপতি জো বিডেন এবং ফার্স্ট লেডি জিল বিডেন আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।এই সফরে মূলত দ্বিপাক্ষিক কৌশলগত সম্পর্কের ক্রমবর্ধমান গুরুত্বের উপর জোর দেওয়া হবে এবং একটি মুক্ত ইন্দো-প্যাসিফিক সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।   MEA বলেছে যে মোদী এবং বিডেন G20 সহ প্লুরি-পার্শ্বিক এবং বহুপাক্ষিক ফোরামে ভারত-মার্কিন সহযোগিতা জোরদার করার উপায়গুলিও .....বিস্তারিত পড়ুন

টিউমার নির্মূল এর নতুন থেরাপিউটিক যা স্থায়ীভাবে গ্যাস্ট্রিক ক্যান্সার দূর করে

উত্তরাপথ: একটি বহু-প্রাতিষ্ঠানিক গবেষণা দল একটি অভিনব ক্যান্সার থেরাপিউটিক তৈরি করেছে, অ্যান্টিবডি টুকরোগুলিকে আণবিকভাবে তৈরি করা ন্যানো পার্টিকেলগুলির সাথে একত্রিত করে, যা গ্যাস্ট্রিক ক্যান্সারে আক্রান্ত ইঁদুরের ক্যান্সারকে স্থায়ীভাবে নির্মূল করে। "হিট অ্যান্ড রান" ড্রাগ ডেলিভারি সিস্টেম, কর্নেল প্রাইম ডটস (সি' ডটস) নামে পরিচিত, এটি বিভিন্ন ধরনের ক্যান্সারের জন্য একটি বহুমুখী এবং অভিযোজনযোগ্য চিকিত্সা হিসাবে সম্ভাব্যতা দেখায়, ন্যূনতম পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া এবং বিষাক্ততার সাথে। গবেষকদের একটি বহু-প্রাতিষ্ঠানিক দল আবিষ্কার করেছে যে একটি নতুন ক্যান্সার থেরাপিউটি .....বিস্তারিত পড়ুন

Scroll to Top