বিজ্ঞানের এক নতুন আবিস্কার সরীসৃপ না ডিম কোণটি প্রাচীন?

ছবি প্রতীকী

উত্তরাপথঃ সরীসৃপ না ডিম কোণটি প্রাচীন? এই প্রশ্নটি বিজ্ঞানী ও দার্শনিকদের উভয়কে একইভাবে বিভ্রান্ত করেছে শতাব্দী ধরে। সাম্প্রতিক নানজিং ইউনিভার্সিটি এবং ইউনিভার্সিটি অফ ব্রিস্টল এর গবেষকরা ডিমের বিবর্তনীয় উৎস এবং সরীসৃপের উত্থানের উপর নতুন করে তথ্য উন্মোচন করেছেন,যা প্রাথমিক পর্যায়ে  প্রাণীর প্রজনন সম্পর্কে প্রচলিত মতামতকে চ্যালেঞ্জ করে।বিজ্ঞানীদের গবেষণার এই ফলাফলটি সম্প্রতি নেচার ইকোলজি অ্যান্ড ইভোলিউশনে প্রকাশিত হয়েছে।

ডিমের উৎপত্তি এবং প্রারম্ভিক প্রাণীদের প্রজনন কৌশল নিয়ে বিতর্ক দীর্ঘকাল ধরে বৈজ্ঞানিক অনুসন্ধানের বিষয়। সনাতন মতে বিশ্বাস করা হয় যে সরীসৃপ ডিম থেকে উৎপন্ন হওয়ায় ডিমটি আগে এসেছিল, যা সরীসৃপদের একটি স্বতন্ত্র গোষ্ঠী হিসাবে চিহ্নিত করে।

নানজিং ইউনিভার্সিটি এবং ইউনিভার্সিটি অফ ব্রিস্টল এর গবেষক দ্বারা পরিচালিত এই নতুন গবেষণায় বিজ্ঞানীরা ৫১ টি জীবাশ্ম এবং ২৯টি জীবন্ত প্রজাতির উপর পরীক্ষা করে একটি নতুন তথ্য আমাদের সামনে এনেছে ।গবেষণায় বলা হয়েছে যে প্রথমে সরীসৃপ, পাখি এবং অন্যান্য স্তন্যপায়ী প্রাণীরা হয়তো অল্প বয়সে জন্ম দিয়েছে,। গবেষকরা  জীবাশ্ম এবং জীবিত উভয় প্রজাতিকে বিশ্লেষণ করে দেখেছেন যে মায়েদের বর্ধিত ভ্রূণ ধারণ (EER) ডিম পাড়ার ক্ষেত্রে নয়, এই  প্রাণীদের প্রারম্ভিক পর্যায়ে একটি বিবর্তনীয় সুবিধা দিয়েছে।

গবেষণায় দেখা গেছে যে সরীসৃপদের পূর্বপুরুষরা জীবিত জন্ম সহ প্রজনন কৌশলের মধ্য দিয়ে গেছে । জীবাশ্মকৃত ভ্রূণ পরীক্ষা করে গবেষকরা প্রাচীন সরীসৃপ আত্মীয়দের মধ্যে প্রাণবন্ততা বা জীবন্ত জন্মের প্রমাণ খুঁজে পেয়েছেন। এই ফলাফলগুলি একটি বাধ্যতামূলক যুক্তি প্রদান করে যে সরীসৃপগুলি ডিম পাড়ার পরিবর্তে জীবিত-বহনকারী পূর্বপুরুষদের থেকে হয়ত বিবর্তিত হয়েছিল।

এই অধ্যয়নের প্রভাবগুলি গভীর, কারণ এটি আমাদের সরীসৃপগুলির বিবর্তনীয় ইতিহাস এবং প্রজনন কৌশল হিসাবে ডিমের উত্থান সম্পর্কে আমাদের আগের ধারণার পুরোপুরি বিপরীত । যদি সরীসৃপগুলি প্রকৃতপক্ষে জীবিত-বহনকারী পূর্বপুরুষদের থেকে বিবর্তিত হয়ে থাকে, তবে এটি ডিমগুলি যে বিবর্তনীয় সুবিধাগুলি দেয় বলে এতকাল মনে করা হত সেই সম্পর্কে একটি প্রশ্ন তুলে দেয় এবং সেই সাথে পরবর্তী কালে সরীসৃপদের ডিমের মাধ্যমে জন্মের এই প্রজনন কৌশলটি কিভাবে প্রভাবশালী হয়েছিল সে সম্পর্কে প্রশ্ন তুলে দেয়।

তা সত্বেও, সরীসৃপ না ডিম কোণটি প্রাচীন? এই সম্পর্কিত অধ্যয়নটি প্রারম্ভিক প্রাণীর প্রজননের জটিলতা এবং প্রারম্ভিক পর্যায়ে বিদ্যমান থাকতে পারে এমন বিভিন্ন কৌশলগুলিকে তুলেধরে । সেই সাথে গবেষণাতে এটি তুলে ধরা হয় যে জীবিত জন্ম থেকে ডিম পাড়ার রূপান্তরটি একটি রৈখিক অগ্রগতি নয় বরং পরিবেশগত, শারীরবৃত্তীয় এবং পরিবেশগত কারণগুলির এর সাথে জটিল সম্পর্ক ছিল।

বিস্তারিত জানতে পড়ুন: Nature Ecology & Evolution, 2023, 7, 1131–1140.

খবরটি শেয়ার করুণ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন


Fried rice syndrome: আগের দিনের রান্না করা ভাত খেলে হতে পারে এই বিশেষ অসুখটি

উত্তরাপথঃ আপনার কি বাসী ভাত বা পান্তা খাওয়ার অভ্যেস আছে? সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড় ফ্রাইড রাইস সিনড্রোম (Fried rice syndrome) নিয়ে আমরা প্রায়ই অবশিষ্ট খাবার গরম করে আবার খাই। কিন্তু জানেন কি এই অভ্যাস আপনাকে অসুস্থ করে তুলতে পারে। অনেক সময় পর আগের রান্না করা  ভাত খাওয়ার ফলে পেট সংক্রান্ত সমস্যা হয়। কেউ কেউ মনে করেন যে খাবার পুনরায় গরম করলে এতে উপস্থিত ব্যাকটেরিয়া মারা যায়, কিন্তু তা নয়। যে খাবারেই স্টার্চ থাকে না কেন, এতে উপস্থিত টক্সিন তাপ প্রতিরোধী। অর্থাৎ খাবার গরম করার পরও ব্যাকটেরিয়া নষ্ট হয় না। ফ্রাইড রাইস সিনড্রোম নামে এই সমস্যা সম্পর্কিত একটি অবস্থা রয়েছে। আজ আমরা এই ফ্রাইড রাইস সিনড্রোম অবস্থার লক্ষণ, কারণ এবং প্রতিকার নিয়ে আলোচনা করব। ভাত রান্না করার পর, যখন অবশিষ্ট ভাত কয়েক ঘন্টা বা সারারাত ঘরের তাপমাত্রায় রেখে দেওয়া হয় এবং তাতে ব্যাকটেরিয়া জন্মাতে শুরু করে, তখন এই অবস্থার নাম দেওয়া হয়েছে ফ্রাইড রাইস সিনড্রোম। .....বিস্তারিত পড়ুন

Free Gift in Politics: ভারতের নির্বাচন ও ফ্রি গিফট সংস্কৃতি

উত্তরাপথঃ ফ্রি গিফট (Free gift in politics)এর রাজনীতি সম্প্রতি ভারতের নির্বাচনী রাজনীতিতে একটি বিশিষ্ট ভূমিকা পালন করছে। বিনামূল্যে কোটি কোটি জনগণকে উপহার প্রদান যা রাজকোষের উপর অতিরিক্ত বোঝা ফেলবে এই সত্যটি জানা সত্ত্বেও, রাজনৈতিক দলগুলি ভোটারদের আকৃষ্ট করার জন্য ফ্রি গিফট (Free gift in politics) দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে নির্বাচনের দৌড়ে একে অপরের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে।এক সময় প্রয়াত তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী জে জয়ললিতা বিনামূল্যে শাড়ি, প্রেসার কুকার, ওয়াশিং মেশিন, টেলিভিশন সেট ইত্যাদির প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভোটের আগে যে বিনামূল্যের সংস্কৃতি শুরু করেছিলেন তা পরবর্তী কালে অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলি দ্রুত অনুসরণ করেছিল। এরপর ২০১৫ সালে আম আদমি পার্টি নেতৃত্ব দিল্লির ভোটারদের কাছে বিনামূল্যে বিদ্যুৎ, জল, বাস ভ্রমণের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দিল্লির বিধানসভা নির্বাচনে জয়লাভ করেছিল। .....বিস্তারিত পড়ুন

Electoral Bond এর গোপনীয়তা সরিয়ে রাজনৈতিক দলগুলিকে, জানাতে হবে প্রাপ্ত অনুদানের পরিমাণ

উত্তরাপথঃ বুধবার, নির্বাচনী বন্ড (Electoral Bond)প্রকল্পের আইনি বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে আবেদনের শুনানি হয়। শীর্ষ আদালত তার মন্তব্যে বলেছে, 'নির্বাচনী বন্ডগুলি রাজনৈতিক দলগুলিকে বেনামী অর্থ প্রদান করে, কারণ তাদের কেনাকাটা সম্পর্কিত রেকর্ডগুলি স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার কাছে উপলব্ধ যা শুধুমাত্র তদন্তকারী সংস্থাগুলি অ্যাক্সেস করতে পারে৷ এর আগে নির্বাচনী বন্ড’ (Electoral Bond) সংক্রান্ত মামলায় সুপ্রিম কোর্টে (Supreme Court) কেন্দ্র দাবি করেছিল, রাজনৈতিক দলগুলির আয়ের উৎস জানার অধিকার নেই জনতার।এবার সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে তৎপর হল নির্বাচন কমিশন (Election Commission of India)।বুধবার বিকেল ৫টার মধ্যে যাবতীয় হিসেব জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কমিশনের তরফে।নির্বাচনী বন্ডের (Electoral Bond)মামলায় কেন্দ্রের আর্জি সত্বেও সুপ্রিম কোর্ট রাজনৈতিক দলগুলিকে আয়ের উৎস জানাতে বলেছিল। আদলত নির্দেশ দিয়েছিল, গত ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কোন রাজনৈতিক দল কত অনুদান মিলেছে, সেই তথ্য বন্ধ খামে জানাতে হবে।এর আগেও নির্বাচনী বন্ডের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে একাধিক মামলা হয়েছে শীর্ষ আদালতে। মামলাকারীরা অভিযোগ করেছিলেন, রাজনৈতিক দলগুলি এই নির্বাচনী বন্ডের মাধ্যমে অবৈধ অর্থ বিদেশ থেকে পেতে পারে এর ফলে গণতন্ত্র ধ্বংস হবে। যদিও কোনও রাজনৈতিক দলই এই দাবি মানতে চায়নি। ৩ অক্টোবর মামলার শুনানিতে প্রধান বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড়ের নেতৃত্বাধীন পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ নির্দেশ দেয়, আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে সব তথ্য দিতে হবে নির্বাচন কমিশনকে। এই রায়ের পরেই তৎপর হল কমিশন। .....বিস্তারিত পড়ুন

প্রাপ্তবয়স্কদের স্মৃতিশক্তি এবং চিন্তাভাবনা হ্রাস সমস্যার সমাধানের ক্ষেত্রে প্রোবায়োটিক

উত্তরাপথঃ সারা বিশ্বের জনসংখ্যার বয়স বৃদ্ধির সাথে স্মৃতিশক্তি এবং চিন্তাভাবনা হ্রাস এবং ডিমেনশিয়ার মতো নিউরোডিজেনারেটিভ রোগের প্রকোপ বাড়ছে৷ তাদের এই  সমস্যাগুলি যে কেবল তাদের একার সমস্যা তা নয় ,এটি ধীরে ধীরে পুরো পারিবারিক সমস্যার আকার নেয়।সম্প্রতি বয়স্ক প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে মস্তিষ্কের কার্যকারিতাকে পুনরুদ্ধার করার জন্য গবেষকদের মধ্যে কার্যকর কৌশল খোঁজার আগ্রহ বাড়ছে।বর্তমানে বেশীরভাগ গবেষক মস্তিস্কের স্বাস্থ্য উদ্ধারের ক্ষেত্রে প্রোবায়োটিকের সম্ভাব্য ভূমিকা নিয়ে গবেষণা করছেন । এখন খুব স্বাভাবিকভাবেই একটি প্রশ্ন আসে প্রোবায়োটিক কি? কেনই বা গবেষকরা মস্তিস্কের স্বাস্থ্য উদ্ধারের ক্ষেত্রে প্রোবায়োটিকের ভূমিকা নিয়ে গবেষণা করছেন । .....বিস্তারিত পড়ুন

Scroll to Top