দ্বিতীয় পাতা


বিজেপির লোকসভার প্রার্থী বাছায়ে ‘নম’ অ্যাপে বিশেষ নজর

উত্তরাপথঃ দিল্লিতে বিজেপির সদর দফতরে বৃহস্পতিবার গভীর রাত পর্যন্ত ভারতীয় জনতা পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিটির প্রথম বৈঠক চলে।প্রায় ৪ ঘন্টা ধরে চলা বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং সহ শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলির মুখ্যমন্ত্রীরাও বৈঠকে অংশ নিতে এসেছিলেন।বৈঠকে লোকসভা নির্বাচনের জন্য ১৭টি রাজ্যের ১৫৫ টি আসন নিয়ে আলোচনা হয়েছে।২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচন এবং ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে দলের হারানো আসনগুলি নিয়েও আলোচনা করা হয়েছে।খুব দ্রুত বিজেপি তাদের প্রথম প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করতে পারে। এবারের নির্বাচনে বেশ কিছু প্যারামিটারের ভিত্তিতে বিজেপি নেতৃত্ব প্রার্থীদের নাম চূড়ান্ত করবে বলে খবর। ‘নম’ অ্যাপে (নরেন্দ্র মোদী অ্যাপ) জনসাধারণের কাছ থেকে এমপিদের সম্পর্কে মতামত নেওয়া হয়েছে।এছাড়াও বেশ কিছু সংস্থাকে দিয়ে প্রতিটি মন্ত্রীর কর্মদক্ষতা মূল্যায়ন করানো হয়েছে।অন্তত ৬০-৭০ জন সংসদ সদস্যের টিকিট বাতিল হওয়ার খবর রয়েছে যাদের পারফরম্যান্স ভালো নয় ।দুইবার জয়ী অনেক পুরনো এমপির জায়গায় নতুন মুখদের সুযোগ দেওয়া হবে বলে খবর। .....বিস্তারিত পড়ুন

এবার শিক্ষা ক্ষেত্রেও কেন্দ্রীয় বঞ্চনার অভিযোগ রাজ্যের

উত্তরাপথঃ ১০০ দিনের কাজের পর সমগ্র শিক্ষা অভিযানে’ বরাদ্দ ১ হাজার ২৭৩ কোটি টাকা আটকানো হবে বলেই শিক্ষামন্ত্রক সূত্রে খবর। শুধু বাংলা নয়, ভোটের ঠিক প্রাক্কালে এই খাতে টাকা আটকানো হচ্ছে দিল্লি, পাঞ্জাব, তামিলনাড়ু, কেরলের মতো বিরোধী শাসিত রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে। কারণ হিসাবে বলা হচ্ছে ‘পিএম-শ্রী’ বা পিএম স্কুলস ফর রাইজিং ইন্ডিয়ায় অনাগ্রহ। এই পাঁচ-ছ’টি রাজ্য কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করেনি। পাঞ্জাব শুরুতে রাজি হয়েও পরে সরে এসেছে। তারই সাজা হিসেবে কোপ বসানো হচ্ছে প্রাপ্য অর্থে। চলতি অর্থবর্ষে (২০২৩-’২৪) সমগ্র শিক্ষা অভিযানে বাংলার জন্য বরাদ্দ করা হয়েছিল ১ হাজার ৭৪৫ কোটি টাকা। এর মধ্যে ৪৭২ কোটি দেওয়া হয়েছে। বাকি ১ হাজার ২৭৩ কোটি আপাতত আটকে রাখা হচ্ছে। পিএম-শ্রী প্রকল্প রূপায়ণে রাজি হলে তবেই মিলবে সেই টাকা। আবার রাষ্ট্রীয় মাধ্যমিক শিক্ষা অভিযানে (আরএমএসএ ) রাজ্যে কেন্দ্রীয় বরাদ্দ বাড়লেও রাজ্যের আটটি জেলার মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক স্কুলের ভাগ্যে প্রাপ্তি তেমন কিছুই নেই ৷ তার মধ্যে আবার একেবারেই উপেক্ষিত রয়ে গিয়েছে শিক্ষা উন্নয়নে পিছিয়ে থাকা মুর্শিদাবাদ ৷ সেই সঙ্গে দার্জিলিং ও আলিপুরদুয়ারও৷ এই তিন জেলার কোনও স্কুলের নামই হয়নি কোনও বরাদ্দ ৷ .....বিস্তারিত পড়ুন

অর্থনীতির দিক থেকে সুখবর, তৃতীয় প্রান্তিকে জিডিপি বৃদ্ধির হার ৮.৪ শতাংশ

উত্তরাপথঃ লোকসভা নির্বাচনের ঠিক আগে জিডিপি প্রবৃদ্ধি রেকর্ড করা হয়েছে। জাতীয় পরিসংখ্যান দপ্তরের দাবি অনুযায়ী, ২০২৩-’২৪ অর্থবর্ষের তৃতীয় ত্রৈমাসিক অর্থাৎ অক্টোবর-ডিসেম্বর মাসে ভারতের জিডিপি বৃদ্ধির হার ছিল ৮.৪ শতাংশ। যা সাম্প্রতিক অতীতে সর্বাধিক। লোকসভা নির্বাচনের ঠিক আগে জিডিপি বৃদ্ধির (GDP Forecast) এই হার প্রকাশ্যে আসায় স্বাভাবিকভাবেই উচ্ছ্বসিত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সোশাল মিডিয়ায় দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তিনি। সরকারের নিজস্ব হিসেব ছিল ৭ শতাংশ, কিন্তু প্রকৃত চিত্র তার চেয়ে অনেক ভালো বলে প্রমাণিত হয়েছে। নির্বাচনের মৌসুমে অর্থনীতির এই সুদিনগুলো সরকারকে বড় ধরনের স্বস্তি দিতে পারে। সরকারি প্রতিবেদন অনুসারে বর্তমানে ভারতের অর্থনীতি সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতি। ভারত সারা বিশ্বে ১ নম্বরে রয়েছে, প্রতিটি ক্ষেত্রে দেশের অগ্রগতি অভূতপূর্ব দেখাচ্ছে। এর আগের গত ত্রৈমাসিকে প্রবৃদ্ধির হার রেকর্ড করা হয়েছিল ৭.৬ শতাংশ, অর্থাৎ এবার আগের চেয়ে অনেক গুণ ভালো প্রবৃদ্ধি ।এখন এই দ্রুতগতির কথা বিবেচনা করে NAC তার অনুমানও সংশোধন করেছে। .....বিস্তারিত পড়ুন

রাহুল গান্ধীর ভারত জোড় ন্যায় যাত্রা নির্ধারিত সময়ের আগেই শেষ হতে চলেছে

উত্তরাপথঃ ২০২৪ লোকসভা নির্বাচন ঘোষণার আগেই প্রচার শুরু করেছে দেশের সব রাজনৈতিক দল। এরই ধারাবাহিকতায় কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বে ভারত জোড় ন্যায় যাত্রা শুরু করেছে। এই যাত্রা ১৬ ফেব্রুয়ারি চান্দাউলির নওবতপুর থেকে উত্তরপ্রদেশের সীমান্তে প্রবেশ করবে। ১৭ ফেব্রুয়ারি বারাণসী পৌঁছাবে। এই সময়ে, রাহুল গান্ধী দর্শনের জন্য কাশী বিশ্বনাথ ধামেও পৌঁছাতে পারেন। কিন্তু উত্তরপ্রদেশে বোর্ড পরীক্ষার কারণে ভারত জোড়া ন্যায় যাত্রার সময় কমানো হয়েছে। এখন উত্তরপ্রদেশে এই যাত্রা ১১ দিনের পরিবর্তে ৬ দিন চলবে। কংগ্রেসের উত্তর প্রদেশ ইউনিটের পক্ষ থেকে সোমবার একটি বিবৃতি জারি করে বলা হয়েছে যে রাহুল গান্ধী ইউপি বোর্ড পরীক্ষা এবং ছাত্রদের স্বার্থের পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্যে তার ভারত জোড় ন্যায় যাত্রার সময় কমিয়েছেন। এর আগে এই যাত্রা উত্তরপ্রদেশে ১৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ২৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল, তবে ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়া উত্তরপ্রদেশ বোর্ড পরীক্ষার কথা মাথায় রেখে এখন এটি কেবল ২১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত যাত্রা এই রাজ্যে থাকবে। বিবৃতিতে আরও বলা হয় যে সংবেদনশীলতার উদাহরণ স্থাপন করে রাহুল গান্ধী অনেক অনুষ্ঠানে জনস্বার্থকে অগ্রাধিকার দিয়েছিলেন। এর আগেও তিনি করোনার সময় জনগণের উদ্বেগের কারণে বাংলায় তার সমাবেশ বাতিল করেছিলেন। .....বিস্তারিত পড়ুন

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে আমন্ত্রিত মমতা, ডাক পেয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত

মেধা দাসঃ এবার দেশের একমাত্র মহিলা মুখ্যমন্ত্রীর কথা শুনতে চায় ইংল্যান্ডের শতাব্দীপ্রাচীন অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়। প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে এই বছরের জুনে বিশ্ববিদ্যালয়ে বক্তৃতা দেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। প্রো-ভিসি, জোনাথন মাইকি মঙ্গলবার বেঙ্গল গ্লোবাল বিজনেস সামিটে এই ঘোষণা করেছিলেন এবং বলেছিলেন যে মুখ্যমন্ত্রী আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন। মুখ্যমন্ত্রীর প্রধান উপদেষ্টা এবং অনুষ্ঠানের সংগঠক অমিত মিত্র এই ঘোষণা করতে মঞ্চে ডেকেছিলেন মাইকিকে। সেখানে মাইকি বলেন, "আমরা তাকে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে বক্তৃতা দেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছি এবং তার সংগ্রাম ও সাফল্য সম্পর্কে কথা বলার জন্য’।প্রসঙ্গত, এর আগে ২০২০ সালেও অক্সফোর্ড ইউনিয়ন থেকে বক্তৃতা দেওয়ার জন্য ডাক পেয়েছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এর আগে ২০১৭ সালেও অক্সফোর্ড ইউনিয়ন থেকে বক্তৃতা দেওয়ার জন্য ডাক পেয়েছিলেন। তার আগে ২০১০ সালে রেলমন্ত্রী থাকাকালীন কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও আমন্ত্রণ পান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও ডাক পান। তবে এর আগে কোনও অনুষ্ঠানেই নানা কারণে যোগ দিতে পারেননি তিনি। তবে এবার তিনি যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। মাঝে গোটা দেশ জুড়ে রয়েছে লোকসভা নির্বাচন। স্বাভাবিক ভাবেই, রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে ব্যস্ত থাকবেন তিনি। এরপর জুন মাসের আমন্ত্রণে তিনি যাবেন বলেও জানান। .....বিস্তারিত পড়ুন

এবারের কৃষক আন্দোলন কতটা আলাদা, কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে কী দাবি কৃষকদের

উত্তরাপথঃ নিজেদের দাবি নিয়ে আবারও রাজপথে নেমেছে কৃষকেরা।  শম্ভু সীমান্তে কৃষকদের মধ্যে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।  পুলিশের অভিযোগ আন্দোলনকারীরা অনেক ব্যারিকেড নস্ট করে দিয়েছে।  এ কারণে অনেক আন্দোলনকারীকে পুলিশ হেফাজতে নিয়েছে।  পরিস্থিতি দেখে মনে হয় না কৃষকরা ফিরে যাবেন।  এবার কৃষকরা তাদের বিভিন্ন দাবিতে অনড়।কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে কৃষকদের দাবি ঠিক কি?  ১. কৃষক নেতারা ন্যূনতম সমর্থন মূল্য (MSP) আইনের দাবি করছেন।তাদের দাবী ২০২০ সালে কৃষির ন্যূনতম সহায়ক মূল্য নির্ধারণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার। দীর্ঘ সময় পার হয়ে গেলেও, সরকার এ ব্যাপারে কোনও পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগ। এর ফলে চরম সমস্যায় পড়েছেন কৃষকরা। এবারও কৃষকদের দাবিগুলির মধ্যে কৃষি সহায়ক মূল্য নির্ধারণের উপর জোর দেওয়া হয়েছে । ২. দিল্লিতে মোর্চার সময় কেন্দ্রীয় সরকার যে দাবিগুলি আশ্বাস দিয়েছিল তা অবিলম্বে পূরণের দাবি করেছে কৃষকরা।৩.২০২১- ২২ সালের কৃষকদের আন্দোলনের সময় যাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছিল তাদের বিরুদ্ধে মামলা বাতিলের দাবি রয়েছে। চার বছর আগে আন্দোলনের সময় বেশ কয়েকজন আন্দোলনকারী কৃষকদের বিরুদ্ধে দায়ের করা হয়েছিল মামলা। মামলাগুলি প্রত্যাহারের প্রতিশ্রুতি দিলেও, সরকার কথা রাখেনি বলে দাবি। মামলা প্রত্যাহারের জন্যও সরব হয়েছে কৃষক সংগঠনগুলি। .....বিস্তারিত পড়ুন

এবার মেক ইন ইন্ডিয়া প্রকল্পের অধীনে হেলিকপ্টার তৈরি করবে টাটারা

উত্তরাপথঃ ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ প্রকল্পের অধীনে এবার ভারতেই তৈরি হবে কপ্টার। ফ্রান্সের কোম্পানি এয়ারবাস এবং টাটা গোষ্ঠী যৌথভাবে তৈরি করবে কপ্টার। ২৬ জানুয়ারি সাধারণতন্ত্র দিবস উপলক্ষ্যে ফরাসি রাষ্ট্রপতি ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ ভারতে এসেছিলেন তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে এই সময় ভারত ও ফ্রান্সের এই দুটি প্রাইভেট কোম্পানির মধ্যে স্বাক্ষরিত হয়েছে এই নয়া চুক্তি।বিদেশমন্ত্রক সূত্রে খবর হেলিকপ্টার তৈরি নিয়ে ফরাসি সংস্থা এয়ারবাসের সঙ্গে বড় চুক্তি স্বাক্ষর করল টাটা গ্রুপ। দুটি কোম্পানি যৌথভাবে ভারতে এইচ ১২৫ (H125) হেলিকপ্টার তৈরি করবে।চুক্তির অধীনে, Tata Advanced Systems Limited (TASL), টাটা গ্রুপের একটি সহযোগী প্রতিষ্ঠান, এই অত্যাধুনিক  হেলিকপ্টার তৈরি ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য এয়ারবাস হেলিকপ্টারের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করবে। এই যৌথ উদ্যোগের লক্ষ্য ভারতের স্বাস্থ্যব্যবস্থায় মুখোমুখি হওয়া সমস্যাগুলি মোকাবেলা করা, বিশেষ করে প্রত্যন্ত অঞ্চলে যেখানে চিকিৎসা পরিষেবার সুযোগ সীমিত। টাটা-এয়ারবাস মেডিকেল হেলিকপ্টারগুলি গুরুতর অসুস্থ রোগীদের সময়মত দূরবর্তী উন্নত চিকিৎসা কেন্দ্রগুলিতে  পৌঁছে দেবে ।এছাড়াও এই হেলিকপ্টারগুলি ব্যক্তিগত পরিবহনের জন্যও ব্যবহার করা যাবে। .....বিস্তারিত পড়ুন

12 3 4 5 6 7 8
Scroll to Top