G20 বৈঠকের আগে বাঁদরের উৎপাত নিয়ে চিন্তায় মোদী সরকার

উত্তরাপথঃ আগামী ৯ সেপ্টেম্বর দিল্লিতে বসতে চলেছে G20 শীর্ষ সম্মেলন চলবে ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। । সম্মেলনকে কেন্দ্র চলছে জোর প্রস্তুতির কাজ। কড়া নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা হচ্ছে রাজধানীকে। তার মধ্যে শঙ্কা দেখা দিয়েছে ‘বানর’-এর উৎপাতকে ঘিরে। সমস্যা মোকাবিলায় নেওয়া হয়েছে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা।দিল্লি প্রশাসনের পক্ষ থেকে আশঙ্কা প্রকাশ করা হচ্ছে যে দেশ-বিদেশের রাষ্ট্রপ্রধানদের কনভয় যাবার সময় বানরের দল উৎপাত করতে পারে ।  

 দ্রুত সমস্যা সমাধানে অভিনব পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে প্রশাসনের তরফে। দিল্লির যে সমস্ত এলাকায় বানরের উপদ্রব বেশি বা গাছে বসবাস করে, সেই সব অঞ্চলে বা গাছের সামনে রাখা হয়েছে ল্যাঙ্গুরের কাটআউট। বনবিভাগের সহায়তায় কাটআউটগুলি লাগানো হয়েছে। এতে বানরের উপদ্রব রোধ করা সম্ভব হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ল্যাঙ্গুরের কাটআউটগুলি যাতে ক্ষতি না হয়, সেদিকেই রাখা হয়েছে নজর। কোনও কাটআউট নষ্ট হলে সঙ্গে সঙ্গে যাতে প্রতিস্থাপন করা যায়, সে ব্যাপারেও রাখা হয়েছে বিকল্প ব্যবস্থা। দিল্লি বনবিভাগের একজন উচ্চপদস্থ আধিকারিক একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, সর্দার প্যাটেল মার্গ বরাবর সেন্ট্রাল রিজের সীমানায় ল্যাঙ্গুরের কাটআউটগুলি স্থাপন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, এগুলি নিয়মিত সরানো হবে যাতে বানররা মনে করে যে আসল ল্যাঙ্গুর আশেপাশে রয়েছে। দিল্লির মিউনিসিপ্যাল কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান সতীশ উপাধ্যায় জানিয়েছেন, বানরের উৎপাত রুখতে প্রাথমিকভাবে এই ধরনের কৌশল গ্রহণ করা হয়েছে। এটি সফল হলে, আগামী দিনে রাজধানীর অন্যান্য এলাকাতেও কাটআউটের ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান তিনি।

এর আগে উত্তরপ্রদেশের রাজধানী লখনউ-তে বানরের উপদ্রবে রাশ টানতে ল্যাঙ্গুরের কাটআউট ব্যবহার করা হয়েছিল। তাতে পাওয়া গিয়েছিল আশানুরূপ ফল। সেই অভিজ্ঞতা থেকে এবার G20 সম্মেলনের জন্য বানরের উপদ্রব রুখতে ল্যাঙ্গুরের কাটআউটের সাহায্য নেওয়া হল।

শুধু কাটআউট নয়, ল্যাঙ্গুরের মতো ডাকতে পারে এমন বেশ কয়েকজন কর্মীকে সম্মেলনের দিনগুলিতে নিয়োগ করা হবে বলে জানিয়েছে দিল্লি মিউনিসিপ্যাল কাউন্সিল। ৩০ থেকে ৪০ জনকে নিয়োগ করা হবে। যে সমস্ত এলাকায় বানরের উপদ্রব বেশি, সেখানেই নিয়োগ করা হবে তাদের।

খবরটি শেয়ার করুণ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন


SAFF Final: কুয়েতকে হারিয়ে সাফ চ্যাম্পিয়ন ভারত

উত্তরাপথ: SAFF Final (সাফ) ফুটবলের শিরোপা হাতছাড়া করেনি এবারও ভারত। শ্বাসরুদ্ধকর লড়াই শেষে শিরোপা নিজেদের কাছেই রেখে দিল Blue Tigers -রা। এই নিয়ে রেকর্ড ৯ম বার এই শিরোপা নিজেদের কাছে রাখল সুনিল ছেত্রীরা। টাইব্রেকারে তারা কুয়েতকে হারিয়েছে ৫-৪ ব্যবধানে । তবে এই জয় খুব সহজে পায়নি সুনিল ছেত্রীরা। বেঙ্গালুরুর শ্রী কান্তিরাভা স্টেডিয়ামে কুয়েতের বিপক্ষে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই শেষে শিরোপা দখলে নিল ভারত। নির্ধারিত সময়, অতিরিক্ত সময় অতঃপর টাইব্রেকার; তবুও নিষ্পত্তি হয়নি শিরোপার। অবশেষে ভারত শিরোপা বুঝে পায় সাডেন ডেথে। .....বিস্তারিত পড়ুন

Gond Tribe: মধ্য প্রদেশে গোন্ড উপজাতির সমৃদ্ধ সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য সংরক্ষণ

গার্গী আগরওয়ালা মাহাতো: গোন্ড উপজাতি(Gond tribe) বিশ্বের বৃহত্তম উপজাতি গোষ্ঠীগুলির মধ্যে একটি। এটি ভারতের বৃহত্তম উপজাতি । এদের গায়ের রং কালো, চুল কালো, ঠোঁট মোটা, নাক বড় ও ছড়ানো। তারা অলিখিত ভাষা গোন্ডি ভাষাতে কথা বলে, যা দ্রাবিড় ভাষার সাথে সম্পর্কিত। গোন্ড উপজাতির একটি দীর্ঘ এবং সমৃদ্ধ ইতিহাস রয়েছে, বিশ্বাস করা হয় যে তাদের শিকড় প্রাক-আর্য যুগে্র । গোন্ডদের সবচেয়ে গৌরবময় রাজা ছিলেন সংগ্রাম শাহ এবং দলগত শাহ, যারা ম্ধ্যপ্রদেশের গন্ডয়ানা রাজ্যের  বিস্তীর্ণ এলাকায় অনেকগুলি দুর্গ তৈরি করেছিলেন। মাত্র ৩০ বছর বয়সে দলগত .....বিস্তারিত পড়ুন

Scroll to Top