Snake Robot : এবার মহাকাশে সাপ রোবট পাঠাবে NASA

উত্তরাপথ

ছবি: NASA-NASA Ames Research Center Public Affairs Office

মহাকাশ অনুসন্ধানের সীমানা আরও বিস্তৃত করতে এবং বহির্জাগতিক পরিবেশের দ্বারা সৃষ্ট চ্যালেঞ্জগুলি কাটিয়ে উঠতে NASA ক্রমাগত উদ্ভাবনী প্রযুক্তির সন্ধান করেছে। এর একটি উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ হল Snake robot বা সাপের মতো রোবট তৈরি করা যা মহাকাশে নেমে যাবতীয় অনুসন্ধানের কাজগুলি করবে এবং সেই সাথে মহাকাশে বসবাসের ক্ষেত্রে প্রতিকূল পরিস্থিতির পর্যবেক্ষণ করবে। এই যুগান্তকারী সৃষ্টিতে মহাকাশ অভিযানে বিপ্লব ঘটানোর সম্ভাবনা রয়েছে, যা দূরবর্তী এবং প্রতিকূল পরিবেশে গবেষণার কাজ নিখুঁত ভাবে সম্পন্ন করতে সাহায্য করবে।  

মহাকাশ অনুসন্ধানের জন্য স্নেক (Snake robot) রোবটের ধারণাটি প্রাথমিকভাবে ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সান্তা ক্রুজের সহযোগিতায় নাসার জেট প্রপালশন ল্যাবরেটরি (জেপিএল) এ তৈরি করা হয়েছিল। রোবটের নকশাটি সাপের নমনীয়তা এবং চালচলন দ্বারা অনুপ্রাণিত, যার ফলে এটি খুব সহজেই জটিল ভূখণ্ড অতিক্রম করতে সক্ষম হবে যা ঐতিহ্যবাহী চাকাযুক্ত বা পায়ের রোবটগুলির অতিক্রম করা কষ্টকর হতে পারে।

সাপের আকৃতির এই রোবটের অনন্য নকশা এটিকে তার জৈবিক প্রতিরূপের গতিবিধির অনুকরণে তৈরী করা হচ্ছে। সাপ রোবটটি একাধিক সংযুক্ত অংশ নিয়ে গঠিত,এবং প্রতিটি অংশ মোটর এবং সেন্সর দিয়ে সজ্জিত। এই বিভাগগুলি রোবটকে স্লাইদার, ক্রল এবং বস্তুর চারপাশে মোড়ানোর ক্ষমতা প্রদান করে, এটি চ্যালেঞ্জিং এবং সীমাবদ্ধ স্থানগুলিতেও রোবটটিকে অসাধারণ অভিযোজনযোগ্যতা প্রদান করবে।

NASA-এর স্নেক রোবট মহাকাশ অন্বেষণ কাজের বিস্তৃত পরিসরের জন্য অপার সম্ভাবনা সৃষ্টি করতে পারে। এর নমনীয়তা এবং নিপুন গঠনশৈলী এটিকে আঁটসাঁট জায়গা, যেমন সরু ফাটল, গুহা বা ধ্বংসাবশেষের মধ্য দিয়ে চলাচল করার জন্য আদর্শ করে তোলে, যেখানে ঐতিহ্যবাহী রোবটগুলি প্রবেশ করে কাজ করতে অক্ষম হবে। অতিরিক্তভাবে, স্নেক রোবটের কুণ্ডলী করার এবং বস্তুর চারপাশে নিজেকে মোড়ানোর ক্ষমতার জন্য যে কোনও প্রতিকূল পরিস্থিতিতে  কাজ পরিচালনার জন্য এটি একটি মূল্যবান সম্পদ হতে পারে ।  

আপাত দৃষ্টিতে স্নেক রোবটকে মহাকাশ গবেষণাতে দুর্দান্ত মনে হলেও ,মহাকাশ মিশনে এটিকে সম্পূর্ণরূপে ব্যবহার করার আগে বেশ কয়েকটি চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করতে হবে। জটিল এবং অপ্রত্যাশিত পরিবেশে কার্যকরভাবে কাজ করার জন্য রোবটের স্বায়ত্তশাসন এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতা বিকাশের অন্যতম প্রধান বাঁধা।যদিও বিজ্ঞানী এবং প্রকৌশলীরা প্রতিবন্ধকতা শনাক্ত করতে এবং প্রতিক্রিয়া জানাতে, পরিবর্তনশীল অবস্থার সাথে খাপ খাইয়ে নিতে এবং স্বায়ত্তশাসিত সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য রোবটের ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য কাজ করছেন।

NASA সক্রিয়ভাবে সাপ রোবট প্রযুক্তির আরও বিকাশ ও পরিমার্জন করার জন্য বিভিন্ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান এবং সংস্থার  সহযোগিতা কামনা করেছে। রোবোটিক্স, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা এবং মহাকাশ অনুসন্ধানের বিশেষজ্ঞদের সাথে অংশীদারিত্বের মাধ্যমে, NASA রোবটের সম্ভাবনাকে সর্বাধিক করার জন্য এবং মহাকাশ মিশনের অনন্য চ্যালেঞ্জগুলি মোকাবেলা করার জন্য সম্মিলিত জ্ঞান এবং দক্ষতা অর্জনের লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে।

নাসার(Snake) স্নেক রোবট মহাকাশ অনুসন্ধানের জন্য রোবোটিক প্রযুক্তিতে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতির প্রতিনিধিত্ব করে। চ্যালেঞ্জিং ভূখণ্ডের মধ্য দিয়ে চালচল করার এবং জটিল কাজগুলি সম্পাদন করার ক্ষমতা ভবিষ্যতের মিশনের জন্য নতুন সম্ভাবনার দ্বার উন্মোচন করবে, যার ফলে বিজ্ঞানী এবং প্রকৌশলীরা  মহাকাশের দুর্গম অঞ্চলগুলি অন্বেষণ করতে সক্ষম করবে৷ গবেষণা এবং বিকাশ অব্যাহত থাকায়, সাপ রোবটের ক্ষমতাগুলি প্রসারিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে, যা মহাবিশ্ব সম্পর্কে আমাদের বোঝার ক্ষেত্রে অবদান রাখবে এবং মানবতাকে মহাজাগতিকতায় আরও এগিয়ে নিয়ে যাবে।

খবরটি শেয়ার করুণ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন


কানারা ব্যাঙ্কের উপর ২.৯২ কোটি জরিমানা করল আরবিআই

উত্তরাপথ: সম্প্রতি ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক বিভিন্ন নিয়ম লঙ্ঘনের জন্য কানারা ব্যাঙ্কের উপর ২.৯২ কোটি টাকা জরিমানা করেছে। ২০২০ সালের জুলাই মাসে আরবিআই দ্বারা ব্যাঙ্কের একটি স্ক্রুটিনি করা হয়েছিল,তাতে যাচাই-বাছাইয়ের পরে, আরবিআই দেখতে পেয়েছে যে ব্যাঙ্ক ফ্লোটিং রেট খুচরা ঋণ এবং এমএসএমই-কে ঋণের সুদকে একটি বাহ্যিক বেঞ্চমার্কের সাথে সংযুক্ত করতে কানারা ব্যাঙ্ক ব্যর্থ হয়েছে এবং ২০২০-২১ আর্থিক বছরে অনুমোদিত ও পুনর্নবীকরণকৃত ফ্লোটিং রেট রুপি ঋণের সুদকে তার প্রান্তিক খরচের সাথে সংযুক্ত করতে ব্যর্থ হয়েছে।আরবিআই বলেছে, অযোগ্য সংস্থার নামে বেশ .....বিস্তারিত পড়ুন

আগামী ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে কি সলমন খানকেও দেখা যাবে কলকাতায় ?

উত্তরাপথ: একেই বলে রথ দেখা কলা বেচা। এলেন ইস্ট বেঙ্গল ক্লাবের শতবর্ষ উদযাপনের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে,আর বাড়তি পাওনা হিসেবে পেয়ে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে একান্ত সাক্ষাতের সুযোগ।  কালো টয়োটা এসইউভি ডব্লিউবি০২এএন৬৬৪৯ গাড়িতে করে বিকেল ৪টে ২০ মিনিটে পৌঁছেযান মুখ্যমন্ত্রীর কালীঘাটের বাড়িতে। অবশ্য রাস্তায় উপচে পড়া ভিড়ের জন্য দু'বার দাঁড়াতে হয়েছিল গাড়িতে থাকা সুপারস্টারকে। পুলিশি নিরাপত্তার ঘেরাটোপে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে ঢোকে সলমন খান। আগেই নিজের টালির চালার বাড়ির সামনে আটপৌড়ে শাড়িতে অপেক্ষায় .....বিস্তারিত পড়ুন

কতো অজানা রে

মৈত্রেয়ী চৌধুরী: ইতিহাস বিষয়ে আলোচনা করতে গেলেই আমাদের মনে যে সব সৌধের প্রসঙ্গ মনে আসে তারমধ্যে পার্লামেন্ট ভবন একটা অবশ্য দ্রষ্টব্য স্থান। বহু পর্যটক এই ভবন দেখতে যান. কিন্তু জানেন কি, এই পার্লামেন্ট ভবনের ডিজাইন কে বানিয়েছিলেন ? 10 জনকে জিজ্ঞেস করলে 9 জনই বলতে পারবেন না। যাঁরা খুব ইতিহাস নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটি করেন অথবা গুগুল সার্চ করে থাকেন, তাঁরা হয়তো উত্তরটা দিতে পারবেন। পার্লামেন্ট ভবনের ডিজাইন বানিয়েছিলেন বিখ্যাত ব্রিটিশ স্থপতি এডুইন লুটিয়েন। তাঁর সহকারী ছিলেন আরেক ব্রিটিশ স্থপতি হার্বার্ট বেকার। 1927 খ্রিস্টাব্দে এই ভবনটির নির্মাণ সম্পূর্ণ হয় এবং ব্রিটিশ .....বিস্তারিত পড়ুন

Scroll to Top