World Music Day: বিশ্ব সঙ্গীত দিবস: সঙ্গীতের সর্বজনীন ভাষার উদযাপনের একটি দিন

উত্তরাপথ

বিশ্ব সঙ্গীত দিবস ফেটে দে লা মিউজিক নামেও পরিচিত ।এটি সঙ্গীতের একটি বিশ্বব্যাপী উদযাপন যা প্রতি বছর ২১শে জুন অনুষ্ঠিত হয়। দিনটি সঙ্গীতের সার্বজনীন ভাষা এবং বিভিন্ন সংস্কৃতি এবং পটভূমির লোকদের একত্রিত করার জন্য পালিত হয়। এই দিনটি শুধুমাত্র পেশাদার সঙ্গীতজ্ঞদের জন্য নয়, কিন্তু যারা সঙ্গীত ভালোবাসেন এবং অন্যদের সাথে তাদের ভালোবাসা ভাগ করতে চান তাদের জন্যও।

১৯৮২সালে ফ্রান্সে বিশ্ব সঙ্গীত দিবসের শুরু ।সেইসময় ফ্রান্সের সংস্কৃতি মন্ত্রী জ্যাক ল্যাং গ্রীষ্মকালীন অবকাশ উদযাপনের জন্য একটি সঙ্গীত উৎসবের আয়োজন করেছিলেন। সেই সময় উৎসবটি বিশাল সাফল্য পেয়েছিল । তারপর থেকে এটি বিশ্বের ১২০ টিরও বেশি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে।

বিশ্ব সঙ্গীত দিবসের উদ্দেশ্য হল সকল প্রকার সঙ্গীতকে প্রচার করা এবং মানুষকে সঙ্গীত তৈরিতে অংশগ্রহণ করতে উৎসাহিত করা। এই দিনে, সমস্ত স্তরের এবং ঘরানার সংগীতশিল্পীরা জনসাধারণের জন্য বিনামূল্যে কনসার্ট করতে দেখা যায়। এই দিনে মানুষ  সঙ্গীতের মাধ্যমে ভাষা, সাংস্কৃতিক এবং ভৌগলিক বাধা অতিক্রম করে সঙ্গীতের এক ঐক্য ও বোঝাপড়ার  বন্ধনে আবদ্ধ হয় ।এদিন শাস্ত্রীয় সঙ্গীত, জ্যাজ, রক বা ঐতিহ্যবাহী লোকসংগীত সবই মিলেমিশে একাকার হয়ে যায়।

বিশ্ব সঙ্গীত দিবস উদযাপন শুধুমাত্র লাইভ পারফরম্যান্সের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। রেডিও স্টেশন, মিউজিক স্টোর এবং অনলাইন প্ল্যাটফর্মগুলিও বিভিন্ন ধারা এবং সংস্কৃতির সঙ্গীত বাজিয়ে উৎসবে অংশগ্রহণ করে। দিনটি মানুষের জন্য নতুন নতুন সঙ্গীত আবিষ্কার করার এবং বিশ্বজুড়ে সঙ্গীত ঐতিহ্যের সমৃদ্ধি ও বৈচিত্র্যের প্রশংসা করার একটি দিন।

খবরটি শেয়ার করুণ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন


WORLD CUP 2023: আফগানিস্তান  ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করল,অধিনায়কত্ব করবেন হশমতুল্লাহ শাহিদি   

উত্তরাপথঃ আগামী মাসে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ২০২৩-এর জন্য একটি শক্তিশালী ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে,এই দলে ফিরেছেন নবীন-উল-হক। ৫ অক্টোবর থেকে ভারতে শুরু হতে চলেছে ক্রিকেট বিশ্বকাপ,চলবে১৯ নভেম্বর পর্যন্ত।  এই বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের দলে ফিরেছেন নবীন-উল-হক, যিনি এশিয়া কাপে দলের অংশ ছিলেন না।১৫ সদস্যের আফগান দলের অধিনায়কত্ব করবেন হশমতুল্লাহ শাহিদি ।একই সময়ে, ২৩ বছর বয়সী অলরাউন্ডার আজমতুল্লাহ ওমরজাই, যিনি এশিয়া কাপের দলে ছিলেন না, তিনিও বিশ্বকাপ দলে জায়গা পেয়েছেন। .....বিস্তারিত পড়ুন

চম্পারন মাটন রাজনীতি কি কোনও নতুন সমীকরণ তৈরি করবে

উত্তরাপথঃ সামনে ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচন ,আর সেই নির্বাচনকে ঘিরে তৈরি হয়েছে INDIAজোট। মুম্বাইতে বিরোধী INDIA জোটের (ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্টাল ইনক্লুসিভ অ্যালায়েন্স) তৃতীয় বৈঠকের একদিন পরে, কংগ্রেস শনিবার রাহুল গান্ধীর লালু প্রসাদ যাদব এবং তার পরিবারের সদস্যদের সাথে দিল্লিতে দেখা করার একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে যেখানে তাদের চম্পারন মাটন দিয়ে রান্না এবং রাজনীতি নিয়ে আড্ডা দিতে দেখা যাচ্ছে।ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, রাহুল গান্ধী প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর জন্যও মাটন চাইছেন যা প্রিয়াঙ্কা বাড়িতে উপভোগ করেন এবং সন্দেহ করেছিলেন যে রাহুল সত্যিই মাটন রান্না করেছেন কিনা। "সবাই করেছে। আমি রান্না করেছি, লালুজি রান্না করেছে, মিসা রান্না করেছে," রাহুল বলল। .....বিস্তারিত পড়ুন

টাইফুন ইউন-ইউং এর আজ জাপানের টোকাই অঞ্চলে প্রত্যাশিত ল্যান্ডফল

উত্তরাপথঃ জাপানের জনগণ টাইফুন নং ১৩ যা ইউন-ইউং নামে পরিচিত যা শুক্রবার বিকেলের দিকে টোকাই অঞ্চলে ল্যান্ডফল করবে বলে আশা করা হচ্ছে, যেখানে নাগোয়া অবস্থিত। জাপান ইতিমধ্যে এর আগমনের জন্য নিজেদের আগাম প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। প্রসঙ্গত গত কয়েকদিন ধরে ক্রমশ তীব্রতর হচ্ছিল টাইফুন ১৩। জাপানের আবহাওয়া সংস্থা বৃহস্পতিবার থেকে শনিবার টোকাই এবং কান্টো অঞ্চলে ভারী বৃষ্টিপাতের সতর্কতা জারি করছে, যা পরিবহন ব্যবস্থাকে প্রভাবিত করতে পারে।আবহাওয়া দপ্তরের মতে শুক্রবার সকাল ৬ টা নাগাদ ২৪ঘন্টা বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ইজু দ্বীপপুঞ্জে ২৫০ মিলিমিটার, টোকাই অঞ্চলে ১৫০ মিলিমিটার এবং কান্টো-কোশিন অঞ্চলে ১০০ মিলিমিটার হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। জাপানের আবহাওয়া সংস্থা (জেএমএ) .....বিস্তারিত পড়ুন

জলবায়ু পরিবর্তন আমাজনের রেইনফরেস্টের কিছু অংশকে সাভানাতে রূপান্তরিত করতে পারে

উত্তরাপথঃ আমাজন রেইনফরেস্ট, যাকে "পৃথিবীর ফুসফুস" হিসাবে উল্লেখ করা হয়। এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ বাস্তুত্তন্ত্র যা বিশ্বব্যাপী জলবায়ু নিয়ন্ত্রণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।সম্প্রতি প্রসিডিংস অফ দ্য ন্যাশনাল একাডেমি অফ সায়েন্সেসের বৈজ্ঞানিক জার্নালে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে একটি নতুন তত্তের বর্ণনা করা হয়েছে ,সেখানে বলা হয়েছে কীভাবে বর্ষার মৌসুমে বিকল্প বন্যা এবং শুষ্ক মৌসুমে খরা, যাকে ডবল-স্ট্রেস বলা হয়, বন প্রতিষ্ঠাকে সীমিত করছে।উদ্বেগজনক গবেষণাতে আরও বলা হচ্ছে যে, জলবায়ু পরিবর্তন-প্ররোচিত খরা আমাজন রেইনফরেস্টের কিছু অংশকে সাভানাতে রূপান্তরিত করতে পারে, যা জীববৈচিত্র্য এবং সামগ্রিকভাবে গ্রহের জন্য সম্ভাব্য ধ্বংসাত্মক পরিণতি আনতে পারে। .....বিস্তারিত পড়ুন

Scroll to Top