এক নজরে INDIA জোটের মুম্বাই এর বৈঠকের প্রথম দিন

সংগৃহীত-ছবি টুইটার

উত্তরাপথঃ INDIA জোটের বৈঠকে সোনিয়া গান্ধী, রাহুল গান্ধী, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, লালু প্রসাদ যাদব, এম কে স্টালিন, সীতারাম ইয়েচুরি, ডি রাজা, অখিলেশ যাদব, রাম গোপাল যাদব, মেহবুবা মুফতি, মনোজ ঝা এবং রাঘব চাদা সহ বেশ কয়েকজন নেতা বৃহস্পতিবার মুম্বাই পৌঁছেছেন।

২৮ টি রাজনৈতিক দলের প্রায় ৬৩ জন প্রতিনিধি বৈঠকে যোগ দেবেন বলে, জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস পার্টি (এনসিপি) সুপ্রিমো শরদ পাওয়ার আগে একটি সংবাদ সম্মেলনে বলেছিলেন।শুক্রবার জোটের সমন্বয় কমিটির একটি বৈঠক হবে এবং সেখানে জোটের জন্য একটি লোগো বাছাই করা বলে খবর।

বৃহস্পতিবার নৈশভোজের পর অনানুষ্ঠানিক বৈঠকে বসে জোটের সদস্যরা।শরদ পাওয়ারের এনসিপি শিবির বিশিষ্ট ব্যক্তিদের জন্য একটি সংবর্ধনার আয়োজন করছে, এবং শিবসেনা (ইউবিটি) লজিস্টিকসের দায়িত্বে রয়েছে। প্রসঙ্গত বিরোধী দল তাদের প্রথম বৈঠকটি জুন মাসে পাটনায় করেছিল এবং তারপরে তারা গত মাসে বেঙ্গালুরুতে আবার জড়ো হয়েছিল

এবার এক নজরে দেখে নেওয়া যাক INDIA জোট সম্পর্কে নেতারা কে কি বললেন- এএপি সাংসদ রাঘব চাড্ডা বলেছেন যে বিজেপি বিরোধীদের জোটে হতবাক।তিনি বলেন, এই জোটের সাফল্যে শাসক দল ভীত। কিন্তু এই জোট ভারতের কোটি কোটি মানুষের, যাকে পরাজিত করা যাবে না।

শিবসেনা (ইউবিটি) নেতা আদিত্য ঠাকরে বলেছেন যে INDIA জোটের লক্ষ্য গণতন্ত্র বাঁচানো।

আরজেডি নেতা মনোজ ঝা বলেছেন যে ভারত জোট ভাঙ্গা দেশকে ঠিক করার জন্য।তিনি বলেন, “এদেশে অনেক কিছু ভেঙে গেছে, স্বপ্ন চুরমার হয়ে গেছে। তা ঠিক করতে, ও দেশের ক্ষত সারাতে এই জোট।”

সিপিআই (এম) নেতা সীতারাম ইয়েচুরি বলেছেন, জোটের প্রতি জনগণের প্রতিক্রিয়া প্রধানমন্ত্রী এবং বিজেপিকে হতাশ করেছে।”

রাষ্ট্রীয় লোকদলের সভাপতি জয়ন্ত চৌধুরী বলেছেন, দেশের এমন একটি যৌথ নেতৃত্বের প্রয়োজন যা তরুণদের এবং সমাজের সকল অংশের চাহিদা এবং আকাঙ্ক্ষার প্রতি প্রতিক্রিয়াশীল। আমাদের এমন একটি সরকার দরকার যা তার সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার প্রতি সংবেদনশীল হবে।

সিপিআই (এম) নেতা ডি রাজা বলেছেন যে দেশের পরিস্থিতি দাবি করে যে সমস্ত ধর্মনিরপেক্ষ গণতান্ত্রিক দলগুলি একত্রিত হয়ে বিজেপিকে পরাজিত করবে।সেই সাথে তিনি বলেন, আমাদের সংবিধান রক্ষা করতে হবে।

সমাজবাদী পার্টির নেতা রাম গোপাল যাদব বলেছেন: “বিরোধী দলগুলির এই জোট ভারতের আত্মাকে বাঁচাতে হয়েছে। ক্ষমতায় থাকা লোকেরা ভারতের আসল আত্মাকে ধ্বংস করে ভারতকে ধ্বংস করছে। এই জোটের লক্ষ্য হল বিজেপিকে ক্ষমতাচ্যুত করা।

বিদুথালাই চিরুথাইগাল কাচ্চি (ভিসিকে) সভাপতি থিরুমাবলাভান বলেছেন: ” আমরা সাধারণ ন্যূনতম কর্মসূচির বিষয়ে আমাদের পরামর্শ দেব। আমাদের লক্ষ্য হল সংখ্যালঘু, মহিলা, দলিত এবং উপজাতীয় সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত প্রান্তিক শ্রেণির উন্নতি নিশ্চিত করা।”

খবরটি শেয়ার করুণ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন


হিউম্যানয়েড রোবট ARTEMIS রেডি পরবর্তী RoboCup-এর জন্য

অনয় কিরণ মাহাতো: কেমন যেন লাগে রোবট এর কথা শুনলে। তারপরে আবার হিউম্যানয়েড, ভাবা যায়। হিউম্যানয়েড রোবট এক জটিল anthropomorphic কৃত্রিম মেশিন যা রোবোটিক্স, লোকোমোশন এবং কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স) এই হিউম্যানয়েড রোবর্ট এর বিকাশকে ত্বরান্বিত করেছে। ১৮১০ সালে জার্মানির ফ্রেডলিচ কাউফম্যানন প্রথম তৈরি করেছিলেন এক ট্রাম্পেট সৈনিক রোবর্ট। এরপর হুমানোইড রোবর্ট তৈরি করেন আরবের একজন মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার আল-যাজরি। এরপর লিওনার্দো দা ভিঞ্ছির আদলে জাপানের ওসাকা ইউনিভার্সিটির প্রোফেসর ঈশিগুর .....বিস্তারিত পড়ুন

কতো অজানা রে

মৈত্রেয়ী চৌধুরী: ইতিহাস বিষয়ে আলোচনা করতে গেলেই আমাদের মনে যে সব সৌধের প্রসঙ্গ মনে আসে তারমধ্যে পার্লামেন্ট ভবন একটা অবশ্য দ্রষ্টব্য স্থান। বহু পর্যটক এই ভবন দেখতে যান. কিন্তু জানেন কি, এই পার্লামেন্ট ভবনের ডিজাইন কে বানিয়েছিলেন ? 10 জনকে জিজ্ঞেস করলে 9 জনই বলতে পারবেন না। যাঁরা খুব ইতিহাস নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটি করেন অথবা গুগুল সার্চ করে থাকেন, তাঁরা হয়তো উত্তরটা দিতে পারবেন। পার্লামেন্ট ভবনের ডিজাইন বানিয়েছিলেন বিখ্যাত ব্রিটিশ স্থপতি এডুইন লুটিয়েন। তাঁর সহকারী ছিলেন আরেক ব্রিটিশ স্থপতি হার্বার্ট বেকার। 1927 খ্রিস্টাব্দে এই ভবনটির নির্মাণ সম্পূর্ণ হয় এবং ব্রিটিশ .....বিস্তারিত পড়ুন

Scroll to Top