বিজ্ঞানীরা প্রকাশ করেছেন: সবচেয়ে কোন বয়সে মানুষ সুখী ?

উত্তরাপথঃ  সুখ একটি বিষয়গত এবং জটিল ধারণা, এবং এর সংজ্ঞা ব্যক্তি থেকে ব্যক্তিতে পরিবর্তিত হতে পারে।সবচেয়ে কোন বয়সে মানুষ সুখী বা সুখের শিখরে পৌঁছায়? গবেষকরা দীর্ঘকাল ধরে এই প্রশ্নটি নিয়ে কৌতূহলী ছিলেন যে আমরা কখন আমাদের সারা জীবনের সুখের অভিজ্ঞতা লাভ করতে পারি। সাম্প্রতিক বৈজ্ঞানিক গবেষণাগুলি এই আকর্ষণীয় বিষয়ে কিছু আলোকপাত করেছে এবং দেখিয়েছে  যে আমাদের বয়স আমাদের সামগ্রিক সুখ উপভোগের ক্ষেত্রে ভূমিকা পালন করে।

জার্মান স্পোর্ট ইউনিভার্সিটি কোলোন, রুহর ইউনিভার্সিটি বোচম, জোহানেস গুটেনবার্গ ইউনিভার্সিটি মেইনজ এবং সুইজারল্যান্ডের বার্ন এবং বাসেল বিশ্ববিদ্যালয়গুলির একটি গবেষণা দল সম্প্রতি সাইকোলজিক্যাল বুলেটিন জার্নালে প্রকাশিত একটি বিস্তৃত মেটা-বিশ্লেষণমূলক পর্যালোচনায় এই প্রশ্নের উপর আলোকপাত করেছে।  ফলাফলগুলি দেখায় যে উত্তরদাতাদের জীবনে তৃপ্তি ৯ থেকে ১৬ বছর বয়সের মধ্যে হ্রাস পেয়েছে, তারপর ৭০ বছর বয়স পর্যন্ত কিছুটা বেড়েছে এবং তারপর ৯৬ বছর বয়সে আবারও হ্রাস পেয়েছে।

কোন বয়সে মানুষ সুখী এই বিষয়ে তাদের গবেষণায়, গবেষকরা মোট ৪৬০,৯০২ অংশগ্রহণকারীর মধ্যে ৪৪৩টি নমুনার জীবনকাল ধরে বিষয়গত সুস্থতার প্রবণতা উপর ভিত্তি করে পরীক্ষা করেছেন। “আমরা বিষয়গত সুস্থতার তিনটি কেন্দ্রীয় উপাদানের পরিবর্তনের উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করেছি,” ব্যাখ্যা করেন অধ্যাপক সুজান বাকার, যিনি প্রাথমিকভাবে বোচামে গবেষণায় কাজ করেছিলেন ।”জীবনের সন্তুষ্টি, ইতিবাচক মানসিক অবস্থা এবং নেতিবাচক মানসিক অবস্থা।”প্রভৃতি বিষয়ের উপর আলোকপাত করেন।

ফলাফলগুলি দেখায় যে ৯ থেকে ১৬ বছর বয়সের মধ্যে জীবনের সন্তুষ্টি হ্রাস পেয়েছে, তারপরে ৭০ বছর বয়স পর্যন্ত কিছুটা বেড়েছে এবং তারপর ৯৬ বছর বয়সে আবারও হ্রাস পেয়েছে। ইতিবাচক মানসিক অবস্থা ৯ থেকে ৯৪ বছর বয়সের মধ্যে একটি সাধারণ পতন দেখিয়েছে, যখন নেতিবাচক মানসিক অবস্থা ৯ এবং ২২ বছর বয়সের মধ্যে সামান্য ওঠানামা করে, তারপর ৬০ বছর বয়স পর্যন্ত হ্রাস পায় এবং তারপরে আবার বৃদ্ধি পায়। গবেষকরা জীবনের সন্তুষ্টিকে  ইতিবাচক এবং নেতিবাচক মানসিক অবস্থার সাথে যুক্ত করে দেখেছেন।

“সামগ্রিকভাবে, গবেষণাটি জীবনের বিস্তৃত সময়কালে একটি ইতিবাচক প্রবণতা নির্দেশ করে।”  সুজান বাকার যা তার গবেষণার ফলাফলে তুলে ধরেন। গবেষকরা ৯ থেকে ১৬ বছর বয়সের মধ্যে বয়ঃসন্ধিকালে সংঘটিত শরীরের এবং সামাজিক জীবনে পরিবর্তনগুলিকে জীবনের সন্তুষ্টির সামান্য হ্রাস বলে দায়ী করেছেন ।এরপর  যৌবন থেকে আবার তাদের মানসিক অবস্থার উন্নতি হয়। ইতিবাচক অনুভূতি শৈশব থেকে প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার শেষের দিকে হ্রাস পেতে থাকে।

গবেষণাটি জীবনকাল জুড়ে এর বিভিন্ন উপাদানের সাথে বিষয়গত সুস্থতা বিবেচনা এবং প্রচার করার প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে। বৈজ্ঞানিক গবেষণা পরামর্শ দেয় যে সুখের স্তরগুলি জীবনকালের মধ্যে একটি U-আকৃতির বক্ররেখা অনুসরণ করে, মধ্যজীবনে একটি একেবারে নিম্নমুখী এবং পরবর্তী বছরগুলিতে একটি ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা থাকে । পরিশেষে, যেকোন বয়সে সুখে থাকার জন্য একটি সামগ্রিক পদ্ধতির প্রয়োজন বা স্বতন্ত্র পরিস্থিতি,এক্ষেত্রে ব্যক্তিগত মূল্যবোধ এবং একটি পরিপূর্ণ এবং অর্থপূর্ণ জীবনের উপলব্ধিকে বিবেচনা করে।

খবরটি শেয়ার করুণ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন


এবার চাঁদের পথে জাপান, অবতরণে সময় লাগতে পারে ছয় মাস

উত্তরাপথঃ এ যেন হঠাৎ করে শুরু হওয়া বিভিন্ন দেশগুলির মধ্যে চাঁদে যাওয়ার প্রতিযোগিতা।ভারতের পর এবার চাঁদের পথে পারি দিল জাপান । চাঁদের জন্য SLIM নামে  তাদের নিজস্ব মুন ল্যান্ডার উৎক্ষেপণ করেছে জাপান।  মহাকাশযানটি ৭ সেপ্টেম্বর জাপানের স্থানীয় সময় সকাল ৮.৪২মিনিটে উৎক্ষেপণ করা হয়।  এটিতে জাপানের নিজস্ব  H2A রকেট ব্যবহার করা হয়েছে। এই মহাকাশ যানটি  তানেগাশিমা স্পেস সেন্টার থেকে উৎক্ষেপণ করা হয়েছে।প্রসঙ্গত দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে জাপান এটিকে নির্দিষ্ট সময়ের চেয়ে ১০ দিন দেরিতে উৎক্ষেপণ করল।মহাকাশযান SLIM ছাড়াও একটি মহাকাশ টেলিস্কোপও পাঠিয়েছে জাপান।উভয় মহাকাশযান এক ঘন্টার মধ্যে তাদের নির্দিষ্ট পথে পৌঁছেছে।  সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে 'স্মার্ট ল্যান্ডার ফর ইনভেস্টিগেটিং মুন' (SLIM) প্রায় চার মাস পর চাঁদে অবতরণ করবে। .....বিস্তারিত পড়ুন

পোল্ট্রি শিল্পে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে চলেছে নতুন জিন প্রযুক্তি

উত্তরাপথ - পোল্ট্রি শিল্পে পুরুষ ছানা মারার অভ্যাস দীর্ঘকাল ধরে নৈতিক উদ্বেগের বিষয়।পরিসংখ্যানে প্রকাশ প্রতি বছর পোলট্রিগুলিতে ৭ বিলিয়ন পুরুষ ছানাকে হত্যা করা হয়।কারণ পুরুষ ছানারা ডিম দিতে পারে না সেই সাথে তারা  মাংসের জন্যও উপযুক্ত না হওয়ার কারণে,তারা অর্থনৈতিকভাবে অলাভজনক বলে বিবেচিত হয় । সেই কারণে ডিম ফোটার পরপরই তাদের euthanized করা হয়।এবার এই সমস্যা সমাধানে মধ্য ইস্রায়েলের Yuval Cinnamon এর গবেষণাগারে এক নতুন প্রযুক্তি আবিষ্কার করা হয় যার দ্বারা সমস্ত ছানাই মহিলা হবে।এক্ষেত্রে পুরুষ ছানাগুলিকে সম্পূর্ণভাবে ডিম থেকে বেরোনোর আগেই তাদের বাঁধা দেওয়া হবে। এই নতুন প্রযুক্তির আবিষ্কার মুর্গীর পুরুষ ছানাগুলিকে প্রায়শই ম্যাসারেশন বা গ্যাসিং পদ্ধতির মাধ্যমে হত্যা করার মত অমানবিক কাজ বন্ধ করতে সাহায্য করবে। .....বিস্তারিত পড়ুন

বিজ্ঞানীদের মতে, বিশ্ব উষ্ণায়নের প্রভাবে কিছু মাছের প্রজাতি সঙ্কুচিত হচ্ছে

উত্তরাপথঃ আমাদের গ্রহে বিশ্ব উষ্ণায়নের প্রভাব ক্রমশ স্পষ্ট হয়ে উঠছে, ক্রমবর্ধমান তাপমাত্রা আমাদের পরিবেশের বিভিন্ন দিককে প্রভাবিত করছে।সম্প্রতি বিজ্ঞানীরা আবিষ্কার করেছেন যে কিছু মাছের প্রজাতি সঙ্কুচিত হচ্ছে এর প্রভাবে। বিজ্ঞানীদের করা এই গবেষণাটি আমাদের মহাসাগরের উষ্ণায়নের প্রত্যক্ষ পরিণতি বলে মনে করা হচ্ছে। গবেষকদের একটি আন্তর্জাতিক দল দ্বারা পরিচালিা সাম্প্রতিক এই গবেষণায় বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলে মাছের জনসংখ্যা পরীক্ষা করা হয়েছে। বিজ্ঞানীরা দেখেছেন যে কড এবং হ্যাডকের মতো বাণিজ্যিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ সহ অসংখ্য প্রজাতির আকার গত কয়েক দশক ধরে হ্রাস পাচ্ছে। আকারের এই হ্রাস সামুদ্রিক বাস্তুতন্ত্র এবং মৎস শিল্প উভয় ক্ষেত্রে ভবিষ্যতে উদ্বেগের কারণ হতে পারে। .....বিস্তারিত পড়ুন

Scroll to Top