Martinez: আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ জিতিয়ে বর্ষসেরা গোলরক্ষক মার্তিনেস

উত্তরাপথঃ মিলিয়ানো মার্টিনেজ (Martinez) প্যারিসে ব্যালন ডি’অর অনুষ্ঠানে মর্যাদাপূর্ণ ইয়াশিন ট্রফি জিতেছেন, অ্যাস্টন ভিলা। মার্টিনেজকে তার বাবা আলবার্তো পুরস্কার দেন। কাতার বিশ্বকাপে করেছিলেন অনবদ্য পারফরম্যান্স। প্রতিটি ম্যাচেই আর্জেন্টিনার হয়ে গোলপোস্টে যিনি তার দক্ষতা দেখিয়েছিলেন তিনি হলেন এমিলিয়ানো মার্তিনেস। আর ফাইনালেও তিনি তার অবিশ্বাস্য নৈপুণ্য দেখিয়েছিলেন । সেকারণে বর্ষসেরা গোলরক্ষকের পুরস্কার জিতেছেন মার্তিনেস।কাতার বিশ্বকাপেও সেরা গোলরক্ষকের পুরস্কার জিতেছিলেন তিনি।বেশ কিছু আগে থেকেই আগেই ধারণা করা হয়েছিল, বর্ষসেরা গোলরক্ষক হতে চলেছেন তিনি।অবশেষে সেই ধারনাকে সত্য করে প্যারিসে ট্রফি নিলেন মার্তিনেস।

প্রসঙ্গত গত মাসে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপজয়ী এবং গোল্ডেন গ্লাভ গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজ ভারত সফর করেছেন।সেই সময় কলকাতার নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাঁকে অভ্যর্থনা জানানো হয়।  তাকে স্বাগত জানাতে বিমানবন্দরে বিপুল সংখ্যক মানুষ উপস্থিত ছিলেন। মার্টিনেজের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের জন্য, আর্জেন্টিনা ২০২২ সালে কাতারে ফিফা বিশ্বকাপ জিতেছিল। 

মার্টিনেজ(Martinez), যিনি কাতার ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২ এ গোল্ডেন গ্লাভ জিতেছেন, বর্তমানে তিনি ইংলিশ ফুটবল ক্লাব অ্যাস্টন ভিলার হয়ে খেলেন।  তিনি ব্যক্তিগত সফরে কলকাতা পৌঁছেছিলেন,এবং সেখানে তিনি আরও অনেক কর্মসূচিতে অংশ নেন।প্রসঙ্গত কাতারের সাথে, মার্টিনেজ ২০২১ সালে কোপা আমেরিকা টুর্নামেন্টেও গোল্ডেন গ্লাভ পুরস্কার জিতেছে।  কোপা আমেরিকা ২০২১-এও আর্জেন্টিনা দল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।  কলকাতায় আর্জেন্টিনা ও লিওনেল মেসির প্রচুর ফ্যান ফলোয়িং রয়েছে। সেই সময় দুই দিন কলকাতায় ছিলেন মার্টিনেজ।

এর আগে দুর্দান্ত ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার পেলে এবং গ্রেট আর্জেন্টিনার ফুটবলার দিয়েগো ম্যারাডোনাও পৌঁছেছেন কলকাতায়।  তাদের দুজনকে ভারতে আনার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন সাতরাদু দত্ত।  পেলে ১৯৭০ সালে এবং ম্যারাডোনা ২০০৮ সালে কলকাতা সফর করেছিলেন।এ ছাড়া দুঙ্গা, কাফু এবং লোথার ম্যাথাউসও এসেছেন কলকাতায়।  তবে অবসরের বহু বছর পর তাঁরা সবাই কলকাতায় গিয়েছিলেন।  একই সময়ে, মার্টিনেজ হলেন প্রথম বিশ্বকাপজয়ী ফুটবলার যিনি বর্তমানে খেলার সময় কলকাতা সফর করেছেন।

প্রসঙ্গত ২০১০ সালে মার্টিনেজ (Martinez) তার পেশাগত জীবন শুরু করেন।  এরপর যোগ দেন ইংলিশ ফুটবল ক্লাব আর্সেনালে।  তবে এই দলে তিনি সবসময়ই রিজার্ভ গোলরক্ষক হিসেবেই থেকেছেন।  তাকে ১০ বছরের জন্য বেঞ্চে বসানো হয়েছিল। ২০২০ সালে তিনি প্রথমবারের মতো আর্সেনালের হয়ে খেলার সুযোগ পান।  ম্যাচটি ছিল এফএ কাপ ফাইনাল, আর্সেনাল এবং চেলসির মধ্যে খেলা।  নিয়মিত গোলরক্ষক বার্ন্ড লেনোর আঘাতের কারণে মার্টিনেজ খেলার সুযোগ পান এবং আর্সেনালকে এফএ কাপ চ্যাম্পিয়ন হতে সাহায্য করেন।  এই ম্যাচে আর্সেনাল জিতেছে ২-১ গোলে।

খবরটি শেয়ার করুণ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন


একগুচ্ছ কর্মসূচি নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee) স্পেন সফরে

উত্তরাপথঃ  একগুচ্ছ কর্মসূচি নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পেনে রয়েছেন। জানা যাচ্ছে, স্পেনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রথম বৈঠক হবে ফুটবল নিয়ে। ১৪ সেপ্টেম্বর, মাদ্রিদে লা লিগার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্য সরকারের প্রতিনিধিদলের বৈঠক। বাংলা ফুটবলের উন্নতির স্বার্থে সরকারের সঙ্গে কোনও বিশেষ চুক্তি হতে পারে লা লিগার । এই বৈঠকে তাঁর সঙ্গে থাকবেন ইস্টবেঙ্গল, মোহনবাগান, মহামেডান স্পোর্টিংয়ের ক্লাবকর্তারাও। এছাড়াও থাকার কথা  সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়েরও।যদিও তিনি এই মুহূর্তে লন্ডনে রয়েছেন লন্ডনে,সেখান থেকেই ১৪ তারিখ সরাসরি মাদ্রিদ পৌঁছবেন বলে খবর।এরপর স্পেনে মমতার লক্ষ্য রাজ্যের জন্য বিনিয়োগ টানা। রাজ্যে বিদেশি লগ্নি বাড়াতে তিনি সঙ্গে বড় প্রতিনিধিদল নিয়ে স্পেনে গিয়েছেন।প্রতিনিধিদলে রয়েছেন ময়দানের তিন ফুটবল ক্লাবের কর্তা, বই প্রকাশকদের একটি দল। .....বিস্তারিত পড়ুন

Diabetes Treatment: রক্তে শর্করা স্থিতিশীল করতে ডালিয়া ফুলের নির্যাস কার্যকর

উত্তরাপথঃ ডায়াবেটিস নিয়ে গবেষণার ক্ষেত্রে একটি উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হয়েছে।সম্প্রতি গবেষণায় ওটাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের (University of Otago)নেতৃত্বে বিজ্ঞানীরা ক্লিনিকাল ট্রায়ালের মাধ্যমে আবিষ্কার করেছে যে ডালিয়া ফুলের পাপড়ির নির্যাস ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের রক্তে শর্করা স্থিতিশীল করতে সাহায্য করতে পারে। সেন্টার ফর নিউরোএন্ডোক্রিনোলজির একজন সহযোগী অধ্যাপক আলেকজান্ডার টুপসের( Alexander Tups) নির্দেশনায়, দলটি খুঁজে পেয়েছে যে, উদ্ভিদের একটি অণু, যা মস্তিষ্কে কাজ করে এবং রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রন করার জন্য শরীরের ক্ষমতাকে শক্তিশালী করে।প্রসঙ্গত ডায়াবেটিস হল একটি দীর্ঘস্থায়ী বিপাকীয় ব্যাধি যা অপর্যাপ্ত ইনসুলিন উৎপাদনের কারণে রক্তে শর্করার মাত্রা অত্যাধিক বেড়ে যায়। .....বিস্তারিত পড়ুন

সুপার পটেটোর অনুসন্ধান - বিজ্ঞানীরা আলু সুপার প্যানজেনোম তৈরি করেছেন

উত্তরাপথঃ আলু বহু শতাব্দী ধরে রান্নার বহুমুখীতা এবং উচ্চ পুষ্টির মানের জন্য খাদ্যের একটি প্রধান উৎস। আলু আজ বিশ্বের প্রায় প্রতিটি কোণে উৎপাদিত হয়, যা আলুকে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং গুরুত্বপূর্ণ ফসলগুলির মধ্যে একটি করে তুলেছে । বছরের পর বছর ধরে, বিজ্ঞানীরা আলুর ফলন, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এবং পুষ্টি উপাদান উন্নত করার জন্য এবং আরও ভাল আলুর জাত প্রজননের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলেছেন। আলুর জিন সম্পাদনা প্রযুক্তি ব্যবহার করে গবেষকরা আলু সুপার প্যানজেনোম তৈরি করেছেন যা আলু গবেষণা এবং প্রজননে একটি উল্লেখযোগ্য মাইলফলক চিহ্নিত হবে বলে বিজ্ঞানীদের আশা । .....বিস্তারিত পড়ুন

সু-স্বাস্থের জন্য ক্যালোরি গ্রহণ প্রয়োজন,কিন্তু সমস্ত খাবারে ক্যালোরির মাত্রা সমান থাকে না

উত্তরাপথঃসু-স্বাস্থের জন্য ক্যালোরি গ্রহণ প্রয়োজন ,কিন্তু কিভাবে একজন ব্যক্তি তার সঠিক ওজন এবং সামগ্রিক স্বাস্থ্যর মধ্যে ভারসাম্য রাখতে পারে । অনেক লোক বিশ্বাস করে যে ক্যালোরি গণনা সাফল্যের চাবিকাঠি। এক্ষেত্রে একটি বিষয় গুরুত্বপূর্ণ তা হল সঠিক মাপে ক্যালোরি গ্রহণ , কিন্তু সমস্ত খাবারে ক্যালোরির মাত্রা সমান থাকে না।আমরা যে খাবার গ্রহণ করি তা আমাদের শরীর প্রক্রিয়া করে সেটিকে ক্যালোরিতে রুপান্তরিত করে । পরে আমরা সেই ক্যালোরিকে ব্যবহার করে বিভিন্ন কাজ করে থাকি।এই বিষয়ে কথা বলার জন্য, আমরা একজন নিবন্ধিত ডায়েটিশিয়ানের কাছে প্রশ্ন রাখি  আমরা যে ধরনের খাবার খাই তা আমাদের শরীরের জন্য কেন গুরুত্বপূর্ণ। .....বিস্তারিত পড়ুন

Scroll to Top